Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

আটক বিপুল চোলাই

বীরভূম-ঝাড়খণ্ডের সীমানা লাগোয়া গ্রাম ঢুড়িয়া। এই গ্রামে এর আগেও চোলাই মদ তৈরি ও বিক্রি বন্ধ করার লক্ষ্যে আবগারি দফতর অভিযান চালিয়েছে। কিন্তু

নিজস্ব সংবাদদাতা 
মুরারই ২১ অক্টোবর ২০২০ ০০:০১
উদ্ধার হওয়া মদ। নিজস্ব চিত্র

উদ্ধার হওয়া মদ। নিজস্ব চিত্র

বারবার সতর্ক এবং ধরপাকড় করেও থামানো যাচ্ছে না মুরারইয়ে চোলাই মদের কারবার। প্রশাসনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বেআইনি মদের কারবারিরা মদ তৈরি করে তা ভোর হতে না হতেই বিভিন্ন জায়গায় পাঠাচ্ছিল। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে মঙ্গলবার ভোর হওয়ার আগেই অভিযান চালিয়ে ২০০ লিটার চোলাই মদ, ৬২৫০ লিটার গুড় জল,১৭টি হাঁড়ি ও চোলাই মদ তৈরির সরঞ্জাম আটক করল আবগারি দফতর।

বীরভূম-ঝাড়খণ্ডের সীমানা লাগোয়া গ্রাম ঢুড়িয়া। এই গ্রামে এর আগেও চোলাই মদ তৈরি ও বিক্রি বন্ধ করার লক্ষ্যে আবগারি দফতর অভিযান চালিয়েছে। কিন্তু ধরপাকড় করেও এই কারবার বন্ধ করা যায়নি। আবগারি দফতরের আধিকারিকেরা জানান, এই গ্রামে অনেকেই চোলাই মদ তৈরি ও তা পাচারের কাজে যুক্ত। ধরতে গেলেই এক ছুটে সীমানা পেরিয়ে পাশের রাজ্যে ঢুকে পড়ে চোলাই কারবারিরা। ধান খেত থেকে আটক করা হয় সরঞ্জাম। এবারও তাই হয়েছে। এলাকাবাসীরা জানান, গ্রামের মদ ব্যবসায়ীরা ভাত, গুড়, বাকর পচিয়ে ও সস্তা নেশার দ্রব্য মিশিয়ে মাটির উনুনে বড় হাঁড়িতে করে সেগুলি ফুটিয়ে চোলাই মদ তৈরি করে। প্লাস্টিক ব্লাডারের মধ্যে চোলাই ভরে ভোরের আলো ফোটার আগেই বিভিন্ন বিক্রয়স্থলে মোটরবাইকে করে পৌঁছে যায়। জেলা আবগারি আধিকারিক দীনেশ মণ্ডল বলেন, ‘‘গ্রামটির উপর আমাদের কড়া নজর আছে। জেলায় চোলাই মদ তৈরি ও বিক্রি করতে দেওয়া হবে না।’’

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement