Advertisement
২৯ নভেম্বর ২০২৩

বিরোধীশূন্য হবে উন্নয়নে, দাবি কেষ্টর

রাজ্য সরকারের একাধিক উন্নয়নমূলক কাজের জন্যই পঞ্চায়েত ভোট বিরোধী শূন্য হবে বলে মনে করেন বীরভূম জেলা তৃণমূলের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। শুধু বীরভূমের ত্রি-স্তর পঞ্চায়েত নয়, বর্ধমানের কেতুগ্রাম, মঙ্গলকোট এবং আউশগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রও একই ফল হবে বলে আশাবাদী তিনি।

সভা: বোলপুরে চলছে সম্মেলন। নিজস্ব চিত্র

সভা: বোলপুরে চলছে সম্মেলন। নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
বোলপুর শেষ আপডেট: ২৪ এপ্রিল ২০১৭ ০০:৪৯
Share: Save:

রাজ্য সরকারের একাধিক উন্নয়নমূলক কাজের জন্যই পঞ্চায়েত ভোট বিরোধী শূন্য হবে বলে মনে করেন বীরভূম জেলা তৃণমূলের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। শুধু বীরভূমের ত্রি-স্তর পঞ্চায়েত নয়, বর্ধমানের কেতুগ্রাম, মঙ্গলকোট এবং আউশগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রও একই ফল হবে বলে আশাবাদী তিনি।

রবিবার বোলপুরের গীতাঞ্জলি সংস্কৃতি অঙ্গনে পশ্চিমবঙ্গ নিয়ন্ত্রিত বাজার সমিতি কর্মচারী সংগঠনের বীরভূম জেলা শাখার প্রথম সম্মেলনে হাজির হয়ে এ কথা জানান তিনি। অনুব্রতর কথায়, ‘‘বীরভূমের ১৬৭ গ্রাম পঞ্চায়েত, ১৯টি পঞ্চায়েত সমিতি ও ৪২ জেলা পরিষদের আসন বিরোধী শূন্য হচ্ছে। কেতুগ্রাম, আউশগ্রাম ও মঙ্গলকোটের আটটি জেলা পরিষদও বিরোধী শূন্য হবে। সবটাই এই সরকারের উন্নয়নমূলক কাজের জন্য।’’ অনুব্রতর মুখে এমন কথা প্রথম নয়। অতীতে একাধিকবার বিরোধীদের হুঁশিয়ারি দিয়ে কথাগুলি বলেছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছিল। এ দিন অবশ্য কন্যাশ্রী, যুবশ্রীর মতো প্রকল্প, রাস্তাঘাট সংস্কার-সহ রাজ্য সরকারের তরফে একাধিক উন্নয়নমূলক কর্মসূচি নেওয়ার জন্যেই পঞ্চায়েত বিরোধীশূন্য হয়ে যাবে বলে আশাপ্রকাশ করেছেন।

পশ্চিমবঙ্গ নিয়ন্ত্রিত বাজার সমিতি কর্মচারী সংগঠন আইএনটিটিইউসি-র সংগঠনের অন্তর্ভূক্ত হওয়ায় তাদের ধন্যবাদ জানান অনুব্রত। ওই সংগঠনের স্থায়ী ও অস্থায়ী কর্মী এবং অবসরপ্রাপ্তদের মন পেতে অনুব্রত বলেন, “এই সংগঠনের অস্থায়ী কর্মীদের স্থায়ীকরণ এবং পেনশনের পরিমাণ বাড়ানো নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী সঙ্গে ঠিক সময়ে কথা বলব।” সম্মেলনে দুই মন্ত্রী আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়, চন্দ্রনাথ সিংহ ছাড়াও ছিলেন দলের সহ সভাপতি অভিজিৎ সিংহ, সংগঠনের রাজ্য আহ্বায়ক সইদুল ইসলাম, জেলা শাখা সভাপতি পিন্টু দাসেরা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE