Advertisement
২০ জুলাই ২০২৪
Bolpur

‘বিধায়ক তো গাড়ির কাচ তুলে চলে যান’, বোলপুরে ‘দিদির দূত’কে ঘিরে অনুযোগ এলাকাবাসীর

আবাস দুর্নীতি থেকে হাসপাতালে পরিষেবা না পাওয়া, বোলপুরের সাংসদ অসিত মালকে দেখে অভিযোগের পর অভিযোগ জানালেন গ্রামবাসীরা। স্থানীয় বিধায়কের বিরুদ্ধেও ক্ষোভপ্রকাশ করলেন কেউ কেউ।

আবাস দুর্নীতি থেকে পর হাসপাতাল পরিষেবা, সাংসদকে কাছে পেয়ে অভিযোগের ঝুলি উপুড় করলেন বাসিন্দারা।

আবাস দুর্নীতি থেকে পর হাসপাতাল পরিষেবা, সাংসদকে কাছে পেয়ে অভিযোগের ঝুলি উপুড় করলেন বাসিন্দারা। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
ময়ূরেশ্বর শেষ আপডেট: ১৪ জানুয়ারি ২০২৩ ১২:৫০
Share: Save:

‘দিদির দূত’ কর্মসূচিতে গ্রামে গিয়ে জনতার ক্ষোভের মুখে পড়লেন বোলপুরের সাংসদ অসিত মাল। স্থানীয় বিধায়ককে কেন এলাকায় দেখা যায় না, প্রশ্ন তুললেন এলাকাবাসী। তাঁদের অভিযোগ, ‘‘বিধায়ক আসেন না, কোনও কাজও করেন না।’’ আবাস নিয়োগে ‘দুর্নীতি’ থেকে স্থানীয় হাসপাতালে পরিষেবা না পাওয়া, ‘দিদির দূত’ সাংসদকে কাছে পেয়ে অভিযোগের ঝুলি উপুড় করলেন বীরভূমের ময়ূরেশ্বর এলাকার মানুষ।

শনিবার বীরভূমের ময়ূরেশ্বর বিধানসভা এলাকায় ‘দিদির দূত’ হয়ে পৌঁছন বোলপুরের সাংসদ। খানিক ক্ষণ এলাকা ঘুরে সাংসদ যান বাসুদেবপুর প্রাথমিক হাসপাতালে। হাসপাতালের সামনে সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলতে যেতেই কার্যত ক্ষোভের মুখে পড়েন তিনি। এলাকাবাসীর অভিযোগ, ‘‘হাসপাতালে কোনও পরিষেবা পাওয়া যায় না। ছোটখাটো অসুখ হলেও সিউড়ি এবং রামপুরহাট হাসপাতালে ‘রেফার’ করে দেওয়া হয়।’’ পাশাপাশি, তাঁরা ময়ূরেশ্বর বিধানসভার বিধায়ক অভিজিৎ রায়ের বিরুদ্ধেও একাধিক অভিযোগ তোলেন। গ্রামবাসীর অভিযোগ, ‘‘বিধায়ককে সচরাচর এলাকায় দেখা যায় না। কখনও-সখনও এলাকায় তাঁর গাড়ি দেখা যায়। তবে তিনি জানলার কাচ তুলে চলে যান। এলাকার কোনও উন্নয়নে শামিল হন না।’’ এই সব নানা প্রশ্নের মুখে অস্বস্তিকর পরিস্থিতির মধ্যে পড়েন তৃণমূল সাংসদ। যদিও প্রত্যেক অভিযোগকারীর কথাই মন দিয়ে শোনেন তিনি। জানান, এ নিয়ে বিধায়কের সঙ্গে কথা বলবেন। পাশাপাশি, স্থানীয় হাসপাতালে গিয়ে পরিষেবা সংক্রান্ত খোঁজখবর শুরু করেন।

সাংসদের কথায়, ‘‘আমি তো সব শুনলাম। আমি গিয়ে অভিজিতের সঙ্গে কথা বলব। কেন এমনটা হয়েছে...’’ এর পর হাসপাতালে গিয়েও সাংসদ কথা বলেছেন বলে জানিয়েছেন। তাঁর সংযুক্তি, ‘‘বিধায়কের আসার কথা ছিল। কেন আসেননি জানি না। ওঁর বাবা অসুস্থ। খোঁজ নিয়ে দেখব।’’

অন্য দিকে, বিধায়ক অবশ্য সমস্ত অভিযোগের কথা অস্বীকার করেছেন। তাঁর সঙ্গে আনন্দবাজার অনলাইনের তরফে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘‘আমি নিয়মিত ব্লকে ব্লকে হাজির থাকি। যে কোনও কর্মসূচিতে উপস্থিত থাকি।’’ গ্রামবাসীদের ক্ষোভ এবং অভিযোগ প্রসঙ্গে বিধায়কের মন্তব্য, ‘‘আমরা চেষ্টা করব নতুন যে তালিকা (আবাস যোজনার) তৈরি হবে, তাতে সবাই যেন সুবিধা পান।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Bolpur Didir Doot tmc mp mayureswar
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE