Advertisement
১৬ জুলাই ২০২৪
Unnatural death

বীরভূমে চাষের খেত থেকে উদ্ধার মহিলা এবং শিশুর দেহ, শরীরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানোর দাগ

শনিবার সকালে জাতীয় সড়ক থেকে কিছুটা দূরে চাষের খেতে বাসিন্দারা দেহ দু’টি পড়ে থাকতে দেখেন। তাঁরা পুলিশে খবর দিলে নলহাটি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেহ দু’টি উদ্ধার করে।

— Representative Image

— প্রতীকী চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
নলহাটি শেষ আপডেট: ২২ জুন ২০২৪ ১৩:৪৭
Share: Save:

চাষের খেত থেকে উদ্ধার হল একটি শিশু এবং এক যুবতীর অর্ধনগ্ন রক্তাক্ত দেহ। দু’জনকেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করা হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে অনুমান পুলিশের। মৃতদের পরিচয় জানা যায়নি। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের নলহাটি থানার নাকপুর চেকপোস্টের কাছে।

শনিবার সকালে নাকপুরে ১৪ নম্বর জাতীয় সড়ক থেকে কিছুটা দূরে চাষের খেতের মধ্যে বাসিন্দারা দেহ দু’টি পড়ে থাকতে দেখেন। তাঁরা পুলিশে খবর দিলে নলহাটি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেহ দু’টি উদ্ধার করে। এলাকার বাসিন্দাদের অনুমান, মৃতেরা সম্পর্কে মা ও পুত্র হতে পারে। উদ্ধার হওয়া যুবতীর বয়স আনুমানিক ২৭ থেকে ৩০ বছর। পরনে ফুল হাতা চুড়িদার। তাঁর নিম্নাঙ্গে কোনও আবরণ ছিল না। যুবতীর দেহের ১৫ থেকে ২০ ফুট দূরে পড়ে ছিল ৬-৭ বছরের এক শিশুপুত্রের রক্তাক্ত দেহ। দু’জনকেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে কুপিয়ে খুন করা হয়েছে বলে মনে করছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা।

স্থানীয় বাসিন্দা আসিরুদ্দিন বলেন, ‘‘সকাল সাড়ে পাঁচটার পর মাঠে কাজে বেরিয়ে শুনছি এ রকম ঘটনা। বাচ্চার মা এখানে পড়েছিল, আর বাচ্চা একটু দূরে। মহিলার পেটে চাকু মেরেছে বলে মনে হচ্ছে। বাচ্চাটিরও শরীরে রক্ত শুকিয়েছিল। তার পর পুলিশকে খবর দেওয়া হল। আমরা দু’জনের কাউকে চিনতে পারছি না।’’ অন্য এক বাসিন্দা রেজাউল বলেন, ‘‘মনে হচ্ছে, অন্য কোথাও খুন করে রাতে মাঠে ফেলে দিয়ে গিয়েছে। কারণ, আমরা যখন দেখলাম, তখন রক্ত শুকিয়ে গিয়েছে। দু’জনের কেউই পরিচিত না। পুলিশ তদন্ত করে দেখুক।’’

নলহাটি থানার পুলিশ দেহ দু’টি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রামপুরহাট সরকারি মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠিয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

West Bengal Police Death Murder
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE