Advertisement
০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Cyber Crime

এটিএম কার্ডের তথ্য জানতে ফোন, উধাও প্রাক্তন রেলকর্মীর সারা জীবনের সঞ্চয়

অভিযোগ, নতুন এটিএম কার্ড পেতে হলে বেশ কিছু তথ্য দিতে হবে বলে ফোন করা হয়েছিল। তার পর মুহূর্তের মধ্যে দু’টি অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও হয়ে গিয়েছে সারা জীবনের জমানো টাকা।

ফোন করে এটিএম কার্ডের তথ্য হাতিয়েছেন প্রতারক। অভিযোগ পূর্ব রেলের হাওড়া শাখার এক অবসরপ্রাপ্ত ম্যানেজারের।

ফোন করে এটিএম কার্ডের তথ্য হাতিয়েছেন প্রতারক। অভিযোগ পূর্ব রেলের হাওড়া শাখার এক অবসরপ্রাপ্ত ম্যানেজারের। প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
হাওড়া শেষ আপডেট: ২৭ নভেম্বর ২০২২ ১৬:৫১
Share: Save:

সাইবার প্রতারকদের খপ্পরে পড়ে সারা জীবনের সঞ্চয় খোয়ালেন হাওড়ায় এক অবসরপ্রাপ্ত রেলকর্মী। তাঁর এটিএম কার্ডের তথ্য হাতিয়ে দু’টি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থেকে গায়েব করে দেওয়া হয়েছে প্রায় দেড় লক্ষ টাকা। পুলিশের কাছে এমনই অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি।

Advertisement

পুলিশ সূত্রে খবর, সাইবার প্রতারণার শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন পূর্ব রেলের হাওড়া শাখার অবসরপ্রাপ্ত ম্যানেজার মিনতি দেবী। হাওড়ার ব্যাঁটরা থানার অন্তর্গত পাওয়ার হাউস এলাকার বাসিন্দা মিনতির রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের স্থানীয় শাখায় দু’টি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট রয়েছে। দু’টি থেকে টাকা গায়েব হয়েছে।

পুলিশের কাছে অভিযোগে মিনতি দেবী জানিয়েছেন, সম্প্রতি তাঁকে ফোন করে জানানো হয় যে চলতি মাসেই তাঁর এটিএম কার্ডের মেয়াদ শেষ হয়ে যাবে। ফলে নতুন এটিএম কার্ড পেতে হলে বেশ কিছু তথ্য দিতে হবে তাঁকে। পাশাপাশি, তাঁর আর একটি এটিএম কার্ডের মেয়াদ আগামী বছর শেষ হওয়ার কথা। সেটিও একই সঙ্গে নতুন করে দেওয়া হবে।

অভিযোগ, এর পর মিনতি দেবীর ফোনে একটি ওটিপি আসে। তার পরেই এক-এক করে এসএমএস আসতে থাকে। তাতে জানানো হয়েছে, তাঁর অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে। মুহূর্তের মধ্যে মিনতির দু’টি অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও হয়ে গিয়েছে ১ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা। সঙ্গে সঙ্গে তিনি ছুটে যান ওই ব্যাঙ্কের স্থানীয় শাখায়। দু’টি অ্যাকাউন্ট সাময়িক ভাবে বন্ধ করে দেওয়ার পাশাপাশি ব্যাঁটরা থানায় এবং হাওড়া সিটি পুলিশের সাইবার অপরাধদমন শাখায় অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। গোটা ঘটনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.