Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৩ অক্টোবর ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

সবং মামলা

মিথ্যা বলতে পুলিশের চাপ, নালিশ আদালতে

গোপন জবানবন্দিতে মিথ্যা কথা বলতে বাধ্য করছে পুলিশ— মঙ্গলবার মেদিনীপুর আদালতে এমন অভিযোগই জানালেন সবংয়ে ছাত্র খুনের মামলায় ধৃত ছাত্র পরিষদ (স

নিজস্ব সংবাদদাতা
মেদিনীপুর ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৫ ০০:৩০
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

গোপন জবানবন্দিতে মিথ্যা কথা বলতে বাধ্য করছে পুলিশ— মঙ্গলবার মেদিনীপুর আদালতে এমন অভিযোগই জানালেন সবংয়ে ছাত্র খুনের মামলায় ধৃত ছাত্র পরিষদ (সিপি) কর্মী অনুপম আদকের আইনজীবী হরিসাধন ভট্টাচার্য। পুলিশ হেফাজতের মেয়াদ শেষে এ দিন অনুপমকে মেদিনীপুরের সিজেএম মঞ্জুশ্রী মণ্ডলের এজলাসে হাজির করা হয়। নতুন করে আর ধৃতকে হেফাজতে চায়নি পুলিশ। তাঁর ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ হয়।

পুলিশ অনুপমের গোপন জবানবন্দি নিতে চেয়ে আদালতে আবেদন করেছিল। তা মঞ্জুর হয়। শুনানি চলাকালীন সেই প্রসঙ্গ টেনে হরিসাধনবাবু বলেন, “আমার মক্কেল গোপন জবানবন্দি দিতে চাইছে। অথচ আমিই জানলাম না। এটা কী ভাবে হয়?” তারপরই অভিযুক্তপক্ষের আইনজীবীর অভিযোগ, গোপন জবানবন্দিতে মিথ্যা বলতে বাধ্য করছে পুলিশ। অনুপম তাঁকে এই কথা জানিয়েছে। এ দিন আদালতে দু’টি দরখাস্ত জমা দেন হরিসাধনবাবু। একটিতে অনুপম আইনজীবীর মাধ্যমে লিখিত ভাবে জানিয়েছেন, ‘পুলিশ আমাকে ভয় দেখিয়ে বলেছে, ‘যদি তুই আমাদের শেখানো কথা আদালতে বলিস, তাহলে ১৪ দিনে জেল থেকে বেরোবি। না হলে ৯০ দিন বেরোতে পারবি না।’ আমি ঘটনা সম্পর্কে কিছু জানি না। পুলিশের শেখানো কথা বলতে পারব না।”

এই বক্তব্যের বিরোধিতা করেন সরকারি আইনজীবী দীপক সাহা। তাঁর দাবি, জোর করে কাউকে গোপন জবানবন্দি দেওয়ানো যায় না। সওয়াল চলাকালীন সিজেএম মঞ্জুশ্রীদেবীর মন্তব্য, “যদি জবানবন্দি দিতে না চায় কোর্টের কাছে বলবে।” আর একটি আবেদন ছিল ভিডিও ফুটেজ সংক্রান্ত। অভিযুক্তপক্ষের আইনজীবী বলেন, “সিসিটিভির ফুটেজ যেখানে স্টোর হয়, সেই হার্ডডিস্ক বাজেয়াপ্ত করা দরকার। আমার মক্কেলের আশঙ্কা, ঘটনার দিনের হার্ডডিস্ক বিকৃত করা হতে পারে।” মামলার তদন্তকারী অফিসার বিশ্বজিত্‌ মণ্ডল অবশ্য জানান, ডিভিআর-সহ পুরো ইউনিটটাই বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে এবং আদালতে জমা দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

এ দিন হরিসাধনবাবু আদালতে আরও বলেন, “কলেজের শিক্ষক-শিক্ষাকর্মী-ছাত্রদের গোপন জবানবন্দি নেওয়া হচ্ছে। অথচ, আজ পর্যন্ত অধ্যক্ষের গোপন জবানবন্দি নেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়নি। পুলিশ এ ব্যাপারে কেন পদক্ষেপ করছে না?”

সবং কলেজে ছাত্র খুনের মামলায় অভিযুক্ত হিসেবে গত বুধবার সিপি কর্মী অনুপমকে হাওড়ার লিলুয়া থেকে ধরে পুলিশ। ধৃত পাঁচদিন পুলিশ হেফাজতে ছিলেন। এ দিন ধৃতের জামিনের আবেদন জানান আইনজীবী হরিসাধনবাবু। সরকারপক্ষের আইনজীবী বিরোধিতা করেন। দু’পক্ষের বক্তব্য শুনে সিজেএম মঞ্জুশ্রীদেবী ১৪ দিন জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন।

সাক্ষরতা দিবস পালন। বিশ্ব সাক্ষরতা দিবস উদ্যাপন হল মেদিনীপুরে। মঙ্গলবার এই উপলক্ষে নানা কর্মসূচি হয়। সকালে মেদিনীপুর শহরে এক শোভাযাত্রা বেরোয়। পরে জেলা পরিষদ চত্বরে এক অনুষ্ঠান হয়। উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের সভাধিপতি উত্তরা সিংহ, জেলার শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ শ্যামপদ পাত্র, জেলার পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ শৈবাল গিরি প্রমুখ। বক্তব্য রাখতে গিয়ে সকলই সাক্ষরতা কর্মসূচি এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। এ ক্ষেত্রে বাবা- মায়েদের আরও সচেতন হওয়ার কথা বলেন। ছেলেমেয়েদের নিয়মিত স্কুলে পাঠানোর পরামর্শ দেন। এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানও হয়।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement