Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

TMC: পুজোর সময় ১০-২০ অক্টোবর উপনির্বাচনে প্রচার করবেন না তৃণমূল প্রার্থীরা

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৬ অক্টোবর ২০২১ ১৩:৪১
মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে ১০-২০ অক্টোবর উপনির্বাচনে প্রচার করবেন না খড়দহের তৃণমূল প্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়।

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে ১০-২০ অক্টোবর উপনির্বাচনে প্রচার করবেন না খড়দহের তৃণমূল প্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়।
ফাইল চিত্র

দরজায় কড়া নাড়ছে শারদোৎসব। আর সেই উৎসবের আবহেই রাজ্যের চারটি বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন। কালীপুজোর আগে ৩০ অক্টোবর খড়দহ, দিনহাটা, শান্তিপুর ও গোসাবায় উপনির্বাচন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভবানীপুর উপনির্বাচন জিতেই নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন করেছেন উৎসবের দিনগুলিতে ভোটের প্রচার বন্ধ রাখার নির্দেশ দিতে। ১০-২০ অক্টোবর উপনির্বাচনের প্রচার বন্ধ থাকুক, চাইছেন মুখ্যমন্ত্রী। কারণ এই সময়ে হিন্দুদের দুর্গাপুজো, লক্ষ্ণীপুজো ও মুসলিম সম্প্রদায়ের নবি উৎসব রয়েছে। তাই কমিশনের কাছে এমন অনুরোধ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

তৃণমূল নেত্রীর এই অনুরোধকে দলের নেতা-কর্মীরা তাঁর নির্দেশ হিসেবেই দেখছেন। তাই চার উপনির্বাচনের যাবতীয় কাজকর্ম ৯ অক্টোবরের মধ্যেই শেষ করে ফেলবেন তৃণমূল প্রার্থীরা। ফের প্রচার শুরু করবেন ২০ তারিখের পর। খড়দহ থেকে তৃণমূল প্রার্থী হয়েছেন রাজ্যের কৃষিমন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়। ভবানীপুর থেকে মুখ্যমন্ত্রীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সুযোগ দিতেই তিনি পদত্যাগ করেছিলেন। তাই বহু আগেই মুখ্যমন্ত্রী তাঁকে খড়দহ উপনির্বাচনে প্রার্থী করার কথা জানিয়ে দিয়েছিলেন। আগামী বৃহস্পতিবার তিনি মনোনয়ন দাখিল করবেন। সঙ্গে ভোট সংক্রান্ত যাবতীয় কাজ সেরে ফেলবেন ৯ অক্টোবরের মধ্যেই। এই উপনির্বাচনে শোভনদেবের নির্বাচনের কাজকর্ম দেখছেন তাঁর পুত্র সায়নদেব চট্টোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন, ১০-২০ অক্টোবর আমাদের কোনও প্রচার কর্মসূচি নেই। তবে খড়দহ এলাকায় কোনও পুজোয় ডাকলে বাবা অবশ্যই যাবেন। তবে সে ক্ষেত্রে কোনও দলীয় প্রতীক তাঁর সঙ্গে থাকবে না।

গোসাবা কেন্দ্রে তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছেন সুব্রত মণ্ডল। রবিবার তাঁর নাম প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই প্রচারে নেমেছেন বালি গ্রাম পঞ্চায়েতের এই প্রধান। দক্ষিণ ২৪ পরগনা (গ্রামীণ) তৃণমূলের জেলা সভাপতি যোগরঞ্জন হালদার বলেন, ‘‘প্রচার নিয়ে প্রার্থীর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। আমি গোসাবা গিয়ে একটি কর্মী সম্মেলন করব। ৯ তারিখে ওই কর্মী সম্মেলন হবে। তারপর পুজোর দিনগুলিতে প্রচার বন্ধ রাখা হবে। ২০ তারিখের পর আবার প্রচার শুরু করব আমরা।’’

শান্তিপুরে শাসকদলের প্রার্থী হয়েছেন ব্রজকিশোর গোস্বামী। নদিয়া জেলার এক প্রবীণ বিধায়কের কথায়, মুখ্যমন্ত্রী চাইছেন না, উৎসবের দিনগুলিতে প্রচার হোক। তা হলে আমাদের প্রার্থীও ওই সময়ে প্রচার করবেন না। এমনিতেই বিরোধীদের থেকে প্রচারে আমরা অনেকটাই এগিয়ে । তাই এই ১০ দিন প্রচার বন্ধ থাকলে সমস্যা হবে না। কোচবিহারের দিনহাটায় আবার প্রার্থী হয়েছেন অভিজ্ঞ রাজনীতিক উদয়ন গুহ। তিনিও দলনেত্রীর কথা মতো প্রচার করবেন বলেই খবর।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement