Advertisement
২০ জুলাই ২০২৪
Suvendu Adhikari and Abhishek Banerjee

অভিষেকের নাম ইডির চার্জশিটে? শুভেন্দুকে আক্রমণ করে পাল্টা ‘নথি’ প্রকাশ তৃণমূলের

শুভেন্দু অধিকারী নাম না করে ইঙ্গিতে আক্রমণ করেছিলেন। বুধবার সেটাই প্রকাশ্যে এনে দিলেন কুণাল ঘোষ। দাবি করলেন, কায়দা করে চার্জশিটের বাছাই অংশ ছড়িয়ে দিচ্ছে বিজেপি।

শুভেন্দু অবশ্য মুখে অভিষেকের নাম বলেননি।

শুভেন্দু অবশ্য মুখে অভিষেকের নাম বলেননি। গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৩ নভেম্বর ২০২২ ১৮:৩৭
Share: Save:

গত শুক্রবার কয়লা পাচার সংক্রান্ত মামলায় দিল্লি হাই কোর্টে পেশ-করা একটি চার্জশিটের তথ্য নিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। সেখানে কারও নাম না করলেও ‘প্রভাবশালী’ বলে আক্রমণ করেছিলেন। এর পরে সমাজমাধ্যমে চার্জশিটের একটি অংশ ছড়িয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ তুললেন তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষ। তাঁর দাবি, বিরোধী দলনেতা তথা বিজেপি ‘আংশিক সত্য’ প্রচার করছে।

শুভেন্দু সাংবাদিক বৈঠকে কারও নামোল্লেখ না করলেও বলেছিলেন, ‘‘আসলে মোট ২,৪০০ কোটি টাকার দুর্নীতি। এই ২,৪০০ কোটি টাকা দুর্নীতির মধ্যে ১,০০০ কোটি টাকা প্রভাবশালী রাজনৈতিক ব্যক্তির কাছে গিয়েছে।’’ পাশাপাশিই শুভেন্দু বলেন, ‘‘আগামী ১২ ডিসেম্বর গুরুত্বপূর্ণ অভিযুক্ত ব্যক্তির মামলা সুপ্রিম কোর্টে নির্দিষ্ট হয়েছে। তাই এখন পুরো বলছি না।’’ দাবি করেছিলেন, ‘‘যে প্রভাবশালী রাজনৈতিক ব্যক্তির কাছে ওই অর্থ গিয়েছে, তিনি এই রাজ্যে কার্যত প্রশাসন, পুলিশ ও শাসকদলকে নিয়ন্ত্রণ করেন।’’

শুভেন্দু নাম না বললেও তৃণমূলের দাবি, দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কেই ইঙ্গিতে আক্রমণ করা হয়েছে। বুধবার সেই আক্রমণের জবাব দিয়েছেন তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ। তাঁর দাবি, যে চার্জশিটের কথা উল্লেখ করা হচ্ছে, তার একটি অংশ সমাজমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হলেও একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ চেপে যাওয়া হয়েছে। কুণালের দাবি, চার্জশিটে যে অংশে ‘এবি’ অর্থে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম উল্লেখ রয়েছে, সেই অংশটিই ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তার পরের অংশেই রয়েছে যে জেরায় অনুপ মাজি জানিয়েছেন, তিনি কখনও ‘এবি’-কে দেখেননি। কখনও যোগাযোগও হয়নি। সেটি বলা হচ্ছে না!

কুণাল একটি হাতে লেখা বয়ানের অংশবিশেষও টুইট করেছেন। তাঁর দাবি, সেটি কয়লা পাচার কাণ্ডে অভিযুক্ত অনুপকে জেরা সংক্রান্ত হাতে লেখা একটি বয়ান। কুণালের আরও দাবি, এর মধ্যে দ্বিতীয় প্রশ্নটি ছড়িয়ে দেওয়া হলেও তৃতীয়টি চেপে যাওয়া হয়েছে। কুণালের টুইট অনুযায়ী দ্বিতীয় প্রশ্নটি ছিল, ‘‘তুমি বার বার এবি-এর নাম নিয়েছ? এবি নাম শোনার পরই সঙ্গে সঙ্গে টাকা পাঠাতে?’’ উত্তর ছিল, ‘‘আমি বুঝতে পারতাম যে উনি বার বার এবি মানে উনি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম বলতে চাইছে। তাই আমি ভয় পেয়ে টাকা পাঠিয়ে দিতাম। কারণ, বিনয় মিশ্র যা বলত, সব সময় সেটাই হত।’’

কুণালের দাবিমতো তৃতীয় প্রশ্নটি ছিল, ‘‘তুমি কখনও এবি-এর সঙ্গে সরাসরি কথা বলেছ? বা বিনয় মিশ্র, বিকাশ মিশ্র, অভিষেক মিশ্রর মাধ্যমে তুমি এবি-র সঙ্গে বা ওঁর কোনও সহকারীর সঙ্গে কথা বলেছ?’’ এর উত্তর রয়েছে, ‘‘আমি কোনও দিন এবি-র সঙ্গে সরাসরি কথা বলিনি বা কখনও ওঁর সঙ্গে যোগাযোগ হয়নি।’’দু’টি প্রশ্ন ও উত্তরের পাতা টুইট করে কুণালের দাবি, ‘‘বিজেপি একতরফা ভাবে চার্জশিটের নাম করে মিথ্যা প্রচার করছে। একটি প্রশ্নের উত্তর ছড়িয়ে দিচ্ছে। আমি এ বার আরও একটি প্রশ্ন ও উত্তর উপহার দিলাম।’’

প্রসঙ্গত, গত বছরের ২৭ সেপ্টেম্বর মহারাষ্ট্রের পুণে থেকে অনুপ মাজি ওরফে লালাকে গ্রেফতার করে সিবিআই। তার পরে লালার ‘ঘনিষ্ঠ’ গুরুপদও গ্রেফতার হন। তৃণমূলের তরফে দাবি করা হয়েছে, আলোচ্য চার্জশিটটি গুরুপদর বিরুদ্ধে ইডি তৈরি করেছে। সেখানেই অনুপের বয়ান রয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE