Advertisement
০৪ ডিসেম্বর ২০২৩
TMC

অভিষেকের ‘ঘেরাও’ ডাক আদালত স্থগিত করলেও শনিবার পথেই তৃণমূল, কর্মসূচিও আট ঘণ্টারই

অভিষেক বলেছিলেন, আট ঘণ্টার জন্য ঘেরাও হবে। মমতা বলেন, ঘেরাও নয়, প্রতীকী বিক্ষোভ। সোমবার মমতা, অভিষেক দু’জনের ঘোষণাকেই সমান গুরুত্ব দিয়ে নতুন কর্মসূচি নিল তৃণমূল।

Symbolic Image.

—প্রতীকী চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ৩১ জুলাই ২০২৩ ১৮:০৭
Share: Save:

ঘেরাও কর্মসূচিতে আদালত স্থগিতাদেশ দিলেও আগামী ৫ অগস্ট, শনিবার পথেই থাকছে তৃণমূল। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপি নেতাদের বাড়ি আট ঘণ্টা ঘেরাও করার ডাক দিয়েছিলেন। ঘেরাও কর্মসূচি না থাকলেও বুধবার আট ঘণ্টার জন্যই পথে নামছে শাসকদল। সোমবার আদালতের রায় জানার পরেই দলের পক্ষে সেই ঘোষণা করে দিয়েছেন তৃণমূল বিধায়ক তাপস রায়। জানিয়েছেন, ওই দিন সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত রাজ্যের প্রতিটি ব্লকে কেন্দ্রীয় প্রকল্পের অর্থ আদায়ের দাবিতে তৃণমূল বিক্ষোভ দেখাবে।

গত ২১ জুলাই ধর্মতলার সভা থেকে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক ঘোষণা করেছিলেন, বুথ থেকে রাজ্য স্তরের বিজেপি নেতাদের বাড়ি আট ঘণ্টা ঘেরাও করার কথা। যদিও সেই ঘোষণার পরমুহূর্তেই তা সংশোধন করে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, কর্মসূচি হবে ব্লক স্তরে। ঘেরাও শব্দটি ব্যবহার করা হবে না বলেও জানিয়েছিলেন তিনি। যদিও তা নিয়ে আদালতে যায় বিজেপি। সোমবার সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে কলকাতা হাই কোর্টের প্রধান বিচারপতি টিএস শিবজ্ঞানমের বেঞ্চে শুনানি হয়। আদালত ওই কর্মসূচিতে স্থগিতাদেশ দিয়ে দেয়। প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘‘কেউ যদি বলেন, কাল হাই কোর্ট ঘেরাও করা হবে, তবে কি সরকার বা পুলিশ কোনও পদক্ষেপ করবে না? কেউ যদি কোথাও বোমা রাখা হবে বলে, তবে কি সরকার বা পুলিশ কোনও পদক্ষেপ করবে না?’’

এর পরেই সাংবাদিক বৈঠক করেন তাপস। বিধানসভায় তিনি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘‘কারও অসুবিধা না করে, দলীয় সংস্কৃতি ও শৃঙ্খলা মেনে আমাদের কর্মীরা বাংলার প্রতিটি ব্লকে বাংলার প্রতি বঞ্চনার বিরুদ্ধে, অর্থনৈতিক অবরোধের বিরুদ্ধে আগামী ৫ অগস্ট সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত সেই কর্মসূচি পালন করবে।’’

প্রসঙ্গত, ২১ জুলাই অভিষেক তৃণমূল সমর্থকদের উদ্দেশে বলেছিলেন, ‘‘আগামী ৫ অগস্ট সমস্ত বুথ, অঞ্চল, ব্লক, জেলা থেকে রাজ্যস্তরের বিজেপি নেতাদের বাড়ি শান্তিপূর্ণ ভাবে ঘেরাও করতে হবে। তবে বাড়িতে কোনও বৃদ্ধ মানুষ থাকলে তাঁকে ছেড়ে দেবেন। বিজেপি নেতা বাড়ি থেকে বেরোবেনও না, ঢুকবেনও না।’’ এর পরেই মমতা বলেন, ‘‘কর্মসূচি হবে ব্লক স্তরে।’’ একই সঙ্গে বলেন, ‘‘গোটা বিষয়টা হবে প্রতীকী। ঘেরাও শব্দটা বলছি না।’’

সেই কথা স্মরণ করিয়ে সোমবার তাপস বলেন, ‘‘হাইকোর্টের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এটা বলতে চাই, কারা পিটিশন করেছিলেন এটা জানার দরকার নেই। সে দিনই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কর্মসূচি ঘোষণার পরে তৃণমূলের সর্বোচ্চ নেত্রী সেটিকে সংশোধন করেছেন।’’ তৃণমূলের এ দিনের ঘোষণায় স্পষ্ট, এক দিকে যেমন মমতার সংশোধিত কর্মসূচিই পালিত হবে, তেমনই অভিষেকের ঘোষণা মতো আট ঘণ্টাই পথে থাকবেন দলের নেতাকর্মীরা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE