×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

ত্রাণ নিয়ে বিক্ষোভ, বাদুড়িয়ায় জনতা-পুলিশ খণ্ডযুদ্ধ, মাথা ফাটল পুলিশের

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২২ এপ্রিল ২০২০ ১৪:৪০
পুলিশ-বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ—ভিডিয়ো থেকে নেওয়া।

পুলিশ-বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষ—ভিডিয়ো থেকে নেওয়া।

ত্রাণের দাবিকে কেন্দ্র করে পুলিশ ও গ্রামবাসীদের মধ্যে সংঘর্য ঘিরে কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নিল উত্তর ২৪ পরগনার বাদুড়িয়ায়। পুলিশকে লক্ষ্য করে এলোপাথাড়ি ইট বৃষ্টি করেন বিক্ষোভকারীরা। পাল্টা ব্যাপক লাঠিচার্জ করল পুলিশ। ঘটনায় আহত হয়েছেন বাদুড়িয়া থানার ওসি-সহ ৪ পুলিশকর্মী। ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে পৌঁছেছেন এসডিপিও। চলছে বাড়ি বাড়ি তল্লাশি। যদিও প্রশাসনের দাবি, ওই এলাকায় গণবন্টনের কোনও সমস্যা নেই।

বুধবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে বাদুড়িয়া পুরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের তারাগুনিয়া এলাকায়। এ দিন সকাল থেকে সেখানকার বাসিন্দাদের একাংশ খোলাপোতা-বাদুড়িয়া সড়ক অবরোধ করেন। তাঁদের অভিযোগ, লকডাউনের মধ্যে বিভিন্ন এলাকায় ত্রাণ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু বার বার আবেদন সত্ত্বেও তাঁদের এলাকায় কোনো ত্রাণ পৌঁছয়নি।

স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, রাস্তা অবরোধ তুলতে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় বাদুড়িয়া থানার পুলিশ। অবরোধকারীদের অভিযোগ, পুলিশ এসেই তাঁদের উপর চড়াও হয় এবং এলোপাথাড়ি লাঠি চালাতে শুরু করে। তার পরেই শুরু হয়ে যায় গ্রামবাসীদের সঙ্গে সংঘর্ষ। পুলিশের সঙ্গে ছিলেন কয়েক জন সিভিক ও ভিলেজ পুলিশ। উত্তেজিত জনগণ পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট পাথর ছুড়তে শুরু করেন।

Advertisement



দেখা যায়, এক খাকি উর্দি ধারী পুলিশ আধিকারিককে মহিলা পুরুষ সবাই মিলে টেনে রাস্তা থেকে গ্রামের মধ্যে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন। তাঁকে বাঁচাতে পাল্টা লাঠি চালাচ্ছেন এক সিভিক পুলিশকর্মী। টানা হ্যাঁচড়ায় রাস্তাতেই পড়ে যান ওই পুলিশ আধিকারিক। উত্তেজিত জনতা পুলিশের হাত থেকে লাঠি কেড়ে নিয়ে পাল্টা পুলিশকেই তাড়া করতে থাকেন। ঘটনায় থানার ওসি-সহ চার পুলিশকর্মী আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেলে থানার ওসি অতিরিক্ত বাহিনী চেয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানান। এসডিপিও বিশাল পুলিশ বাহিনী নিয়ে গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেন। পুলিশের উপর হামলাকারীদের খোঁজে তল্লাশি চলছে বলে জানান জেলার এক শীর্ষ পুলিশ আধিকারিক।

আরও পড়ুন: সংঘাতের অবসান, রাজ্যে করোনা-পরিস্থিতি দেখতে পথে নামছে কেন্দ্রীয় দল

বাদুড়িয়া পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান দীপঙ্কর ভট্টাচার্য এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘পুরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের দাসপাড়ায় এই ঘটনা ঘটেছে। ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর অরিত্র ঘোষের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। ওখানকার সকলেই ত্রাণ পেয়েছেন। রাজনৈতিক উস্কানি দিয়ে গন্ডগোল পাকানো হয়েছে।”

আরও পড়ুন: কেন্দ্রীয় দলকে সব রকম সহযোগিতার আশ্বাস মুখ্যসচিবের

এ বিষয়ে রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন, ‘‘ঘটনার কথা শুনেছি। এর সঙ্গে গণবন্টন ব্যবস্থার কোনও সম্পর্ক নেই। পুলিশ আইন অনুযায়ীই চলবে।’’

এ দিন নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বাদুড়িয়ার ঘটনা প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘বাদুড়িয়ায় ঘটনাতে ওটা সরকারের রেশন নয়। অনেক জায়গায় এনজিওগুলো, রাজনৈতিক দলগুলো হেল্প করছে। এটা তারা নিজেদের টাকা দিয়ে কিনে নিজেরা দিচ্ছে। তারা কতটা দিতে পারবে সেটা তাদের নিজেদের ব্যপার। সরকার মাসে ৫ কেজি দেবে বলেছে তা দিয়ে দেবে।”

(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)

Advertisement