Advertisement
১৭ জুলাই ২০২৪

বিমানে দুর্ব্যবহার, গলাধাক্কা মহিলাকে

যাঁকে নিয়ে এই ভিডিও, সুজান পেরেজ নামে সেই মহিলা যথেচ্ছ দুর্ব্যবহার করেছিলেন ম্যারিসার সঙ্গে। গত ৬ ফেব্রুয়ারি ডেল্টার বিমানে নিউ ইয়র্ক সিটি থেকে সাইরাকিউজ যাওয়ার পথে ঘটনাটি ঘটে।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

সংবাদ সংস্থা
নিউ ইয়র্ক শেষ আপডেট: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ ০১:২৪
Share: Save:

ফেসবুকে অন্তত আঠারো লক্ষ বার দেখা হয়েছে ভিডিওটা! এখন হাত কামড়াচ্ছেন ম্যারিসা রান্ডেল। ফেসবুকে কালেভদ্রে কিছু পোস্ট করেন এই তরুণী। সেটাই যে ‘ভাইরাল’ হয়ে যাবে, ভাবেননি।

যাঁকে নিয়ে এই ভিডিও, সুজান পেরেজ নামে সেই মহিলা যথেচ্ছ দুর্ব্যবহার করেছিলেন ম্যারিসার সঙ্গে। গত ৬ ফেব্রুয়ারি ডেল্টার বিমানে নিউ ইয়র্ক সিটি থেকে সাইরাকিউজ যাওয়ার পথে ঘটনাটি ঘটে। ঘটনার ভিডিও তোলেন ম্যারিসাই।

অভব্যতার জন্য সুজানকে বিমান থেকে নামিয়ে দেওয়া হয়। পরিবারকে দেখাবেন বলে পরে ফেসবুকে ওই ভিডিও পোস্ট করেন ম্যারিসা। কিন্তু এখন ওই মহিলার জন্য কিছুটা খারাপই লাগছে তাঁর। কারণ, এই ঘটনা শিরোনামে আসতেই নিউ ইয়র্কের সরকারি চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে সুজান পেরেজকে।

ম্যারিসা আফসোস করে বলছেন, ‘‘খারাপ লাগছে। আমি ওঁর দিকটা জানি না। উনি আমারটা জানেন না। পুরোটাই হয়তো ভুল বোঝাবুঝির জন্য ঘটে গিয়েছে।’’ সে দিন বিমান উড়ে যাওয়ার আগেই ভিডিওটা পোস্ট করে দেন ম্যারিসা। তিনি সাইরাকিউজ নামতে নামতে তাঁর পরিবারের সবাই জেনে গিয়েছেন ঘটনাটি।

ম্যারিসার বয়ান অনুযায়ী, পিছনের দিকের আসন পাওয়ায় প্রথম থেকেই বিরক্ত ছিলেন সুজান। নানা অশালীন শব্দে ক্ষোভ জানাচ্ছিলেন তিনি। ম্যারিসা কোলে নিজের ছোট্ট ছেলেকে দেখিয়ে সুজানকে অনুরোধ করেন, দয়া করে ও ভাবে কথা বলবেন না! সুজান ম্যারিসাকে দেখতেই পাননি এমন ভান করে আজেবাজে কথা বলেই চলেন। ফের অনুরোধ জানান ম্যারিসা। তখন চিৎকার করে ‘শাট আপ’ বলে তাঁকে থামিয়ে দেন সুজান।

ভিডিও-র শুরু এর পর থেকে। দেখা যাচ্ছে, চেঁচামেচি করে সুজান ম্যারিসার উল্টো দিকের আসনে বসছেন। চাকরি কেড়ে নেওয়ার হুমকি দিচ্ছেন এক বিমানকর্মীকে। ম্যারিসার ছেলে কান্নাকাটি না করলেও সুজান বলে যান, ‘‘এই ছিচকাঁদুনেটার পাশে ওর বাবা এসে বসুক।’’ ম্যারিসা জানান, কিছু ক্ষণের মধ্যেই ভুল বুঝে বিমানকর্মীর কাছে ক্ষমা চান সুজান। কিন্তু আর তাঁর কোনও কথা শোনা হয়নি। বিমানের আর এক কর্মী তাঁকে বলেন, ‘‘এক জন মহিলা এবং শিশুর উপরে চোটপাট করছেন আপনি!’’ এর পরে সুজান বলেন, তিনি চাপের মধ্যে রয়েছেন। তাই জোরে কথা বলে ফেলেছেন। এর জন্য বারবার দুঃখপ্রকাশ করেন। তাতে আর লাভ হয়নি। সোজা নামিয়ে দেওয়া হয় বিমান থেকে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE