Advertisement
০৪ ডিসেম্বর ২০২২

চাই রুশ ক্ষেপণাস্ত্র, আমেরিকায় ডোভাল

কূটনৈতিক সূত্র বলছে, ডোভালের এই সফর রাশিয়ার সঙ্গে চুক্তির দিকে লক্ষ্য রেখেই। সদ্য শেষ হয়েছে আমেরিকার সঙ্গে ‘টু প্লাস টু’ বৈঠক। সেখানেও এই চুক্তির বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে

জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল। ফাইল চিত্র

জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল। ফাইল চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০৩:৪৮
Share: Save:

আগামী মাসের গোড়ায় ভারত সফরে আসছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। মস্কোর সঙ্গে ক্ষেপণাস্ত্র চুক্তি সই হওয়ার কথা রয়েছে ওই সফরে। তার আগে আজ ওয়াশিংটনের পৌঁছলেন ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল। মার্কিন বিদেশমন্ত্রী মাইক পম্পেয়োর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করবেন তিনি।

Advertisement

কূটনৈতিক সূত্র বলছে, ডোভালের এই সফর রাশিয়ার সঙ্গে চুক্তির দিকে লক্ষ্য রেখেই। সদ্য শেষ হয়েছে আমেরিকার সঙ্গে ‘টু প্লাস টু’ বৈঠক। সেখানেও এই চুক্তির বিষয়টি উল্লেখ করা হয়েছে। ভারত আশাবাদী যে রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা কেনার বিষয়টি নিয়ে আমেরিকার কাছে থেকে ছাড় আদায় করা সম্ভব হবে। ডোভাল বোঝাতে চেষ্টা করবেন যে রাশিয়ার সঙ্গে এই চুক্তি নিয়ে দীর্ঘদিন আগেই কথা শুরু হয়েছিল। তখন আমেরিকার নিষেধাজ্ঞার প্রশ্নই ওঠেনি। তা ছাড়া, এই ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা পাকিস্তানের কাছেও আছে। তাই দক্ষিণ এশিয়ার রাজনীতিতে ভারসাম্য বজায় রাখার জন্য নয়াদিল্লির পক্ষে তার নাগাল পাওয়াটা খুবই জরুরি। এর সঙ্গে আফগানিস্তানের নিরাপত্তার বিষয়টিও জড়িয়ে রয়েছে। রাশিয়া এই ক্ষেপণাস্ত্র চিনকেও বিক্রি করেছে বলে হোয়াইট হাউসকে জানাবে নয়াদিল্লি।

কূটনৈতিক সূত্রের মতে, ট্রাম্প প্রশাসনের উপর আমেরিকার সমরাস্ত্র শিল্প সংস্থাগুলিরও প্রবল চাপ রয়েছে ভারতকে নিষিদ্ধ তালিকায় না আনার জন্য। লকহিড মার্টিন, বোয়িং অথবা রেথিয়নের মতো সংস্থাগুলি ভারতকে নিয়মিত যুদ্ধাস্ত্র সরবরাহ করে। ভারতকে নিষিদ্ধ তালিকায় আনা হলে বিপুল অঙ্কের আর্থিক লোকসানের মুখে পড়তে হবে সংস্থাগুলিকে।

আরও পড়ুন: শিশুকন্যার যত্নে ত্রুটি! ধৃত ভারতীয় দম্পতি

Advertisement

বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ এখন রাশিয়ায়। এই নিয়ে গত ১১ মাসে তিন বার রাশিয়া গেলেন সুষমা। রুশ উপপ্রধানমন্ত্রী ইউরি বোরিসোভের সঙ্গে বৈঠক করেন সুষমা। পরে বলেন, ‘‘মস্কোর সঙ্গে সম্পর্ককে সব থেকে বেশি গুরুত্ব দেয় দিল্লি।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.