Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

#মিটু নিয়ে রসিকতা ট্রাম্পের

 সংবাদ সংস্থা
ওয়াশিংটন ১২ অক্টোবর ২০১৮ ০২:০৬
ডোনাল্ড ট্রাম্প। —ফাইল চিত্র।

ডোনাল্ড ট্রাম্প। —ফাইল চিত্র।

মার্কিন সু্প্রিম কোর্টে সদ্য নিযুক্ত বিচারপতি ব্রেট ক্যাভানাকে নিয়ে বিতর্ক এখনও থামেনি। এর মধ্যেই ফের #মিটু আন্দোলন নিয়ে রসিকতা করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বুধবার মধ্যবর্তী নির্বাচন উপলক্ষে পেনসিলভেনিয়ার এক সভায় #মিটু আন্দোলন নিয়ে কটাক্ষ করেন প্রেসিডেন্ট। বলেন, ওই আন্দোলনের জন্যই তিনি ‘দ্য গার্ল দ্যাট গন আওয়ে’ শব্দবন্ধনীটি ব্যবহার করতে পারেন না। গত জুলাইয়েও এই আন্দোলন নিয়ে রসিকতা করেছিলেন ট্রাম্প।

যৌন হেনস্থার অভিযোগে হলিউড প্রযোজক হার্ভি ওয়াইনস্টাইনের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন হলিউডের বহু অভিনেত্রী। তার পর থেকেই গোটা বিশ্বে জোরদার হয় #মিটু আন্দোলন। ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধেও এক সময় প্রচুর মহিলা যৌন হেনস্থা বা নিগ্রহের অভিযোগ এনেছিলেন। কিন্তু তিনি বরাবর সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন এবং বিষয়টি নিয়ে রসিকতা ও মশকরা করে এসেছেন। তাঁর পাল্টা দাবি, বিশ্বে নিপীড়িত পুরুষদের নিয়ে তিনি বেশি চিন্তিত।

Advertisement

তবে এরই মধ্যে যৌন হেনস্থা নিয়ে মুখ খুলেছেন হলিউডের অভিনেতা আরনল্ড শোয়ার্ৎজেনেগার। ৭১ বছরের এই অভিনেতা এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, অতীতে বেশ কিছু মহিলার সঙ্গে অশালীন আচরণ করেছিলেন তিনি। এবং পরে তার জন্য ক্ষমাও চেয়ে নেন।

মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প আবার এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, খাস হোয়াইট হাউসেই এমন কিছু মানুষ বাস করেন, যাঁদের তিনি একেবারেই বিশ্বাস করেন না। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পও বিষয়টি নিয়ে ওয়াকিবহাল বলে জানান মেলানিয়া। যদিও ফার্স্ট লেডির এই বক্তব্যের সঙ্গে যৌন হেনস্থার কোনও সম্পর্ক নেই বলেই মনে করা হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে প্রেসিডেন্টকেও জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল। তিনিও জানান, বিশ্বাস করা যায় না এমন কিছু মানুষকে হোয়াইট হাউস থেকে বার করে দেওয়া হয়েছে। এখনও কিছু মানুষ প্রশাসনিক দায়িত্বে আছেন, যাঁদের মেলানিয়া একদমই বিশ্বাস করেন না।

আরও পড়ুন

Advertisement