×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৪ জুন ২০২১ ই-পেপার

৬৫৮ পাতার ইমপিচমেন্ট রিপোর্টে ‘দোষী’ ট্রাম্প

সংবাদ সংস্থা
ওয়াশিংটন ১৭ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৪:৫১
ডোনাল্ড ট্রাম্প। —ফাইল চিত্র

ডোনাল্ড ট্রাম্প। —ফাইল চিত্র

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মার্কিন কংগ্রেসের হাউস অব রিপ্রেজ়েন্টেটিভসে চলা তদন্তের রিপোর্ট প্রকাশ করলেন বিচারবিভাগীয় কমিটির চেয়ারম্যান জেরল্ড ন্যাডলার। রবিবার স্থানীয় সময় রাত সাড়ে বারোটায় এই রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়। ৬৫৮ পাতার সেই রিপোর্টের ছত্রে ছত্রে লেখা রয়েছে, কেন দোষী সাব্যস্ত করা উচিত প্রেসিডেন্টকে। ন্যাডলারের কথায়, ‘‘প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প আমাদের গণতন্ত্রের পক্ষে অত্যন্ত বিপজ্জনক। তাঁর কাজকর্ম সংবিধান-বিরোধী। তাঁকে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া উচিত। ’’

২৪ সেপ্টেম্বর থেকে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ইমপিচমেন্ট তদন্ত চলছে মার্কিন কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজ়েন্টেটিভসে। পরশু বুধবার ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ইমপিচমেন্ট প্রস্তাব আনা হবে কি না, সে বিষয়ে হাউসে চূড়ান্ত ভোটাভুটি হবে। তার আগে প্রকাশিত এই রিপোর্টে বলা হয়েছে, দু’টি বিষয়ের জন্য প্রেসিডেন্টকে ইমপিচ করা যেতেই পারে। প্রথম, ২০২০-র প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী, ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের বিরুদ্ধে তদন্ত করার জন্য চাপ দিয়েছিলেন একটি ইউক্রেনকে। যা নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় সরাসরি বিদেশি রাষ্ট্রের হস্তক্ষেপের শামিল। দ্বিতীয়, কংগ্রেস যখন এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করে, সেই প্রক্রিয়া বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন প্রেসিডেন্ট।

এখন পর্যন্ত যে ভাবে তদন্ত-প্রক্রিয়া এগিয়েছে, তা থেকে স্পষ্ট, ট্রাম্পের বিরুদ্ধেই ভোট পড়বে ডেমোক্র্যাট নিয়ন্ত্রিত হাউসে। এর পরে সেনেটে যাবে ইমপিচমেন্ট প্রক্রিয়া। সেনেট অবশ্য রিপাবলিকানদের দখলে। হাউসে সেনেটে ইমপিচমেন্ট প্রক্রিয়া শুরু হলে কংগ্রেসের রিপাবলিকান সদস্যদের ইমপিচমেন্টের পক্ষে ভোট দেওয়ার আর্জি জানালেন ডেমোক্র্যাটরা। রবিবার একটি টিভি শোয়ে ন্যাডলার এবং তদন্ত কমিটির চেয়ারম্যান অ্যাডাম শিফ রিপাবলিকান সদস্যদের আর্জি জানান, ‘‘ট্রাম্প গণতন্ত্রের পক্ষে অত্যন্ত বিপজ্জনক। আপনারা ভেবে-চিন্তে ভোট দেবেন।’’

Advertisement
Advertisement