Advertisement
২৯ নভেম্বর ২০২২

ডব্লিউটিও ছাড়ার হুমকি দিলেন ট্রাম্প

শুল্ক যুদ্ধের উত্তাপ বাড়িয়ে ফের এ ভাবেই বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থাকে হুমকি দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
ওয়াশিংটন শেষ আপডেট: ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০৪:৫২
Share: Save:

হয় ডব্লিউটিও নিজেদের পাল্টাক, না হলে বেরিয়ে যাবে আমেরিকা। শুল্ক যুদ্ধের উত্তাপ বাড়িয়ে ফের এ ভাবেই বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থাকে হুমকি দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

Advertisement

বহু দিন ধরেই তাঁর অভিযোগ ছিল, বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থায় (ডব্লিউটিও) আমেরিকার প্রতি অবিচার করা হয়েছে। সেখানে খুব কমই মামলা জিতেছেন তাঁরা। আর এ বার মার্কিন সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেন, গত বছর থেকে আমেরিকা মামলা জিততে শুরু করেছে। কারণ তারা জানে, তা না হলে আমেরিকা বেরিয়ে যাবে।

একই সঙ্গে মার্কিন গাড়ির উপরে শুল্ক ছাঁটা নিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) দেওয়া প্রস্তাব যথেষ্ট নয় বলেও জানান তিনি। যদিও ইইউয়ের পাল্টা হুমকি, আমেরিকা ইউরোপীয় গাড়িতে শুল্ক চাপালে, তারাও মার্কিন গাড়িতে কর চাপাবে।

মার্চে প্রথম বাণিজ্য যুদ্ধের দামামা বাজিয়েছিলেন ট্রাম্প। তার পর থেকে ক্রমাগত আক্রমণ করেছেন চিন, ভারত, ইউরোপের বিভিন্ন দেশকে। অভিযোগ করেছেন, ডব্লিউটিওর প্রতি চিনকে বাড়তি সুবিধা দেওয়ার। ইস্পাত ও অ্যালুমিনিয়ামে ট্রাম্প প্রশাসন শুল্ক চাপানোর পর থেকে ভারত-সহ একের পর এক দেশ ডব্লিউটিওয় আমেরিকার বিরুদ্ধে আর্জি জানিয়েছে। তাতেও না দমে চিনা পণ্যে বাড়তি শুল্ক চাপিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন। যা নিয়ে ডব্লিউটিওর ডিরেক্টর জেনারেল রোবার্তো আজেভেদো সতর্কও করেছেন। জানিয়েছেন, একমাত্র আলোচনার মাধ্যমেই রফাসূত্র মিলতে পারে।

Advertisement

কিন্তু ট্রাম্পের কথায় সেই রফার ইঙ্গিত মেলেনি। ইইউয়ের বাণিজ্য কমিশনার সিসিলিয়া ম্যালস্ট্রমের প্রস্তাব ছিল, ধাপে ধাপে গাড়ির উপরে শুল্ক শূন্যে নামাতে চান তাঁরা। কিন্তু আমেরিকাকেও সেই পথে হাঁটতে হবে। মার্কিন প্রেসিডেন্টের কথায়, তা যথেষ্ট নয়। কারণ, ইউরোপীয়রা সেখানকার গাড়িই কেনেন। মার্কিন মুলুকে তৈরি গাড়ি নয়। একই সঙ্গে তাঁর অভিযোগ, ইইউ-ও প্রায় চিনের মতোই খারাপ। তার পরেই ধেয়ে এসেছে ইউরোপের পাল্টা হুমকি। ইউরোপীয় কমিশনের চিফ জঁ ক্লদ ইয়ুঙ্কারের হুঙ্কার, ট্রাম্প নতুন করে শুল্ক চাপালে, তাঁরাও চুপ করে বসে থাকবেন না। ফলে আপাতত বাণিজ্য যুদ্ধের উত্তাপ কমার কোনও লক্ষণ নেই বলেই মত সংশ্লিষ্ট মহলের।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.