Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

গাড়ি নিয়ে হতাশা, আড়াই কোটির মার্সিডিজ জ্বালিয়ে ভিডিয়ো করলেন মালিক

মার্সিডিজটি ছিল এএমজি ৬৩ এ মডেলের। দাম প্রায় আড়াই কোটি টাকা। এটি কেনার পর থেকে বেশ কয়েক বার খারাপ হয়। বার পাঁচেক ডিলারের কাছে পাঠাতেও হয়েছি

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৯ অক্টোবর ২০২০ ১৪:৪১
Save
Something isn't right! Please refresh.
জ্বলছে সেই মার্সিডিজ। ছবি: ইউটিউব

জ্বলছে সেই মার্সিডিজ। ছবি: ইউটিউব

Popup Close

গাড়িটা ভোগাচ্ছিল। মেরামত করেও কাজ হচ্ছিল না। রাগ হচ্ছিল সার্ভিস সেন্টারের উপরেও। কিন্তু তাই বলে নিজের মার্সিডিজে আগুন লাগিয়ে দেবেন! এমন অবিশ্বাস্য কাজটাই করেছেন রাশিয়ার মিখাইল লিটভিন নামে ব্যক্তি। তিনি আসলে ইউটিউবার। গাড়ি পোড়ানোর সেই ভিডিয়ো তিনি নিজের চ্যানেলে আপলোডও করেছেন। আর তা রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গিয়েছে।

জানা গিয়েছে, শুধু গাড়ি নিয়ে ভোগান্তিই নয়, তাঁর ইউটিউব চ্যানেলেও নাকি ইদানীং তেমন ভিউস মিলছিল না বলেও হতাশ ছিলেন মিখাইল। এ বার গাড়ি পুড়িয়ে মনের জ্বালা মেটানোর পাশাপাশি সেই ভিডিয়ো নিজের ইউটিউব আপলোড করে ভাল দর্শকও পেয়েছেন তিনি। সঙ্গে প্রচুর লাইক আর কমেন্ট।

আরও পড়ুন: লন্ডন ফেরত চিকিৎসককে আড়াই কোটি টাকায় 'আলাদিনের আশ্চর্য প্রদীপ' বেচে গ্রেফতার ২ ঠগ

Advertisement

মিখাইলের মার্সিডিজটি ছিল এএমজি ৬৩ এ মডেলের। দাম প্রায় আড়াই কোটি টাকা। এটি কেনার পর থেকে বেশ কয়েক বার খারাপ হয়। বার পাঁচেক ডিলারের কাছে পাঠাতেও হয়েছিল। সারিয়ে আনার পরে কিছু দিন ঠিকঠাক চললেও ফের সমস্যা দেখা দেয়। এই ভাবে ৪০ দিনেরও বেশি চলায় বিরক্ত হয়ে যান মিখাইল। এর পরেই গাড়িটি জ্বালিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। ৭ মিনিট ৩৮ সেকেন্ডের ভিডিয়োয় দেখা যাচ্ছে, প্রথমে গাড়িটি চালিয়ে একটি ফাঁকা মাঠে নিয়ে যাওয়া হয়। গাড়িতেই রাখা ছিল অনেকগুলি পেট্রোলের জার। একটি একটি করে জার খুলে গাড়িতে পেট্রোল ঢালেন মিখাইল। এর পরে লাইটার দিয়ে আগুন লাগিয়ে দেন। দাউ দাউ করে জ্বলতে থাকে মার্সিডিজ। অনেকটা দূরে তখন এক মনে সসেজ খাচ্ছেন মালিক।

গাড়ি পোড়ানো শেষ করে অন্য একটি সবুজ গাড়ি চড়ে মাঠ ছাড়েন মিখাইল। সেই গাড়িও স্টার্ট নিচ্ছিল না। ঠেলে দিতে এগিয়ে আসেন বেশ কয়েক জন। গোটা ঘটনা ক্যামেরবন্দি করতে আগে থেকেই যে ওই ইউটিউবার সব ব্যবস্থা করে রেখেছিলেন সেটাও স্পষ্ট ভিডিয়োটিতে।



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement