Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

বড়দিনে ওভারটাইম করতে গিয়ে নিউইয়র্কের রাস্তায় খুন ভারতীয় বংশোদ্ভূত

তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। তবে বন্দুকবাজ ওই আততায়ীর নাগাল পাননি তাঁরা।

সংবাদ সংস্থা
ক্যালিফোর্নিয়া ২৭ ডিসেম্বর ২০১৮ ১৪:৫৪
নিহত রনিল সিংহ। ছবি: এপি।

নিহত রনিল সিংহ। ছবি: এপি।

পুলিশের চাকরি করতেন। তাই ছুটি মেলেনি বড়দিনেও। দুনিয়াসুদ্ধ মানুষ যখন রাতভর উত্সবে মেতেছিলেন, তখন রাস্তায় দাঁড়িয়ে যানজট সামলাচ্ছিলেন রনিল সিংহ। তবে আর ঘরে ফেরা হল না ভারতীয় বংশোদ্ভূত এই মার্কিন পুলিশকর্মীর। আমেরিকার রাস্তায় দুষ্কৃতীর গুলিতে প্রাণ হারালেন তিনি।

ক্যালিফোর্নিয়ার রাস্তাঘাটে যানজট এবং অপরাধমূলক ঘটনা সামলানোর দায়িত্ব নিউম্যান পুলিশ বিভাগের। ওই বিভাগেই চাকরি করতেন ৩৩ বছরের কর্পোরাল রনিল সিংহ। বড়দিনের রাতে ওভারটাইম করতে হচ্ছিল তাঁকে। রাস্তায় দাঁড়িয়ে যানজট সামালাচ্ছিলেন। সেই সময় রাত ১টা নাগাদ তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি করে এক দুষ্কৃতী। সাহায্য চাওয়ার সময়টুকুও পাননি রনিল। শুধুঅস্ফুট উচ্চারণে গুলি চালানোর খবরটুকু দিতে পেরেছিলেন ওয়াকিটকির মাধ্যমে। তার পরই রাস্তার উপর লুটিয়ে পড়েন।

তড়িঘড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। তবে বন্দুকবাজ ওই আততায়ীর নাগাল পাননি তাঁরা। পুলিশ এসে পৌঁছনোর আগেই গাড়িতে চড়ে চম্পট দেয় সে। রক্তাক্ত অবস্থায় রনিলকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু তত ক্ষণে সব শেষ। তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে দেন চিকিত্সকেরা।

Advertisement



মৃত্যুর আগে স্ত্রী ও ছেলের সঙ্গে রনিল সিংহ। ছবি: টুইটার থেকে সংগৃহীত।

আরও পড়ুন: বিজেপিতে সঙ্ঘের ছায়া! উত্তরপ্রদেশে ভোটের দায়িত্বে কট্টর মোদী সমালোচক গোর্ধন

আরও পড়ুন: উন্নাও গণধর্ষণকাণ্ডে এ বার নির্যাতিতার বিরুদ্ধেই জালিয়াতির মামলা

রাস্তায় বসানো সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজে আততায়ীর দেখা মিলেছে। তার ছবিও প্রকাশ করেছে ক্যালিফোর্নিয়া পুলিশ। আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে ওই আততায়ী ঘুরে বেড়াচ্ছে বলে শহরবাসীকে সতর্ক করা হয়েছে ইতিমধ্যেই। তাকে শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।

ফিজি থেকে আমেরিকায় পা রেখেছিলেন রনিল সিংহ। গত ৭ বছর ধরে নিউম্যান পুলিশ বিভাগে কর্মরত ছিলেন। পুলিশ কুকুরকে ঠিকমতো প্রশিক্ষণ দেওয়া ও তাদের সাহায্যে অপরাধের তদন্ত করার দায়িত্বে ছিলেন তিনি। নিউম্যান পুলিশ বিভাগে যোগ দেওয়ার আগে ক্যালিফোর্নিয়ার মার্সড কাউন্টিতে কর্মরত ছিলেন। স্ত্রী অনামিকা ও পাঁচ মাসের এক শিশুপুত্র রেখে গেলেন তিনি। পুলিশ বিভাগের তরফে তাঁদের সমবেদনা জানানো হয়েছে। ক্যালিফোর্নিয়ার সর্বত্র জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে গভর্নরের দফতর।

আরও পড়ুন

Advertisement