Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৬ জুলাই ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

পাক আদালতে ১৫ বছর জেলের সাজা ২৬/১১-র চক্রী লকভির

গত শনিবার লকভি গ্রেফতারের পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসে মদত দেওয়ার অভিযোগে নতুন করে মামলা রুজু করা হয় লাহৌরের একটি থানায়।

সংবাদ সংস্থা
লাহৌর ০৮ জানুয়ারি ২০২১ ১৮:৩৪
Save
Something isn't right! Please refresh.
জাকিউর রহমান লকভি— ফাইল চিত্র।

জাকিউর রহমান লকভি— ফাইল চিত্র।

Popup Close

এক সপ্তাহ আগেই তাকে গ্রেফতার করেছিল পাকিস্তানের পঞ্জাব পুলিশের সন্ত্রাসদমন শাখা। জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তইবার ‘অপারেশনস কমান্ডার’ জাকিউর রহমান লকভিকে এ বার ১৫ বছরের জেলের সাজা দিল লাহৌরের সন্ত্রাস বিরোধী আদালত।

পাক আদালতের শুক্রবারের রায়ে বলা হয়েছে, ‘সন্ত্রাসে আর্থিক মদত দেওয়ার অপরাধে ১৯৯৭ সালের সন্ত্রাস বিরোধী আইন আইনের বিধিন্ন ধারায় অভিযুক্তকে ১৫ বছরের জেলের সাজা দেওয়া হল’।

মুম্বইয়ের ২৬/১১ সন্ত্রাসের অন্যতম চক্রী লকভিকে কয়েক বছর আগেই ‘সন্ত্রাসবাদী’ হিসেবে চিহ্নিত করেছে রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদ। ২০০৮ সালের ওই ঘটনায় আজমল কসাব-সহ পাকিস্তানের ১০ লস্কর জঙ্গি মুম্বইয়ের একাধিক স্থানে হামলা চালিয়েছিল। ওই ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছিলেন ১৬৬ জন। আহত হন ৩০০ জন। সেই হামলার পরিকল্পনায় বড় ভূমিকা ছিল লকভির

Advertisement

আন্তর্জাতিক চাপে ২০১৫ সালে তাকে গ্রেফতার করেছিল পাকিস্তান সরকার। কিন্তু রওয়ালপিন্ডির একটি আদালত তাকে জামিনে মুক্তি দেয়। পাক পুলিশের দাবি অনুযায়ী তার পর থেকে সে ফেরার। যদিও ভারতের অভিযোগ, পাকিস্তান প্রশাসনই নিরাপত্তার ঘেরাটোপে রেখেছিল তাকে। একদা লস্করের প্রতিষ্ঠাতা হাফিজ সঈদের ‘ডান হাত’ হিসেবে পরিচিত ছিল লকভি। কিন্তু বছর কয়েক আগে দু’জনের সম্পর্কে ফাটল ধরায় লস্করের কার্যকলাপ কিছুটা শ্লথ হয়ে গিয়েছে বলে পাক সংবাদমাধ্যমের দাবি।

আরও পড়ুন: অন্য দেশের পতাকাও ছিল ক্যাপিটলে, দাবি ভারতের পতাকাবাহীর

সন্ত্রাসে অর্থ সাহায্য বন্ধে কোনও পদক্ষেপ না-করার অভিযোগে গত বছর পাকিস্তানকে ধূসর তালিকায় রেখেছিল আন্তর্জাতিক সংগঠন ‘ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্স’ (এফএটিএফ)। তারই প্রভাবে ইমরান সরকার নতুন করে ‘সক্রিয়’ হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। গত শনিবার লকভি গ্রেফতারের পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে সন্ত্রাসে মদত দেওয়ার অভিযোগে নতুন করে মামলা রুজু করা হয় লাহৌরের একটি থানায়।

আরও পড়ুন:ক্যাপিটলে হামলাকারীদের জমায়েতে ভারতের জাতীয় পতাকা

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement