×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৪ জুন ২০২১ ই-পেপার

ফিলিপের শেষকৃত্যে থাকবেন না মেগান

সংবাদ সংস্থা
লন্ডন ১২ এপ্রিল ২০২১ ০৫:০০
ফিলিপের শেষকৃত্যের আগে কড়া পাহারা উইনসরের সামনে। রবিবার।

ফিলিপের শেষকৃত্যের আগে কড়া পাহারা উইনসরের সামনে। রবিবার।
রয়টার্স।

রাজকীয় পরিচয় পরিত্যাগ করে গত বছরের মার্চে বাকিংহাম থেকে নিজেদের বিচ্ছিন্ন করেছিলেন রাজকুমার হ্যারি ও তাঁর স্ত্রী মেগান। প্রিন্স ফিলিপের শেষকৃত্যে ফের পরিবারের সঙ্গে একত্রিত হবেন প্রিন্স হ্যারি। শারীরিক কারণেই তাঁর স্ত্রী মেগান ফিলিপের অন্ত্যেষ্টিতে যোগ দিতে পারবেন না বলে ব্রিটিশ রাজপ্রাসাদের তরফে জানানো হয়েছে।

আগামী ১৭ এপ্রিল স্থানীয় সময় বেলা ৩টেয় উইনসর কাসেলের সেন্ট জর্জেস চ্যাপেলে ফিলিপের শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে। গত কাল রাজপ্রাসাদের তরফে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, করোনা অতিমারির কারণে যাবতীয় বিধিনিষেধ মেনেই ফিলিপের অন্ত্যেষ্টি সম্পন্ন হবে। শেষকৃত্য হবে রাজকীয় মর্যাদায়। এতে ব্রিটেনের আমজনতা শামিল হবেন না। ফিলিপ-ঘনিষ্ঠ ৩০ জন থাকবেন ওই অনুষ্ঠানে। উপস্থিত থাকবেন হ্যারিও। রাজপ্রাসাদের তরফে জানানো হয়েছে, মেগান অন্তঃসত্ত্বা। তাঁর শারীরিক অবস্থার কথা বিবেচনা করেই চিকিৎসকেরা তাঁকে ক্যালিফর্নিয়া থেকে ব্রিটেনে না-যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

বর্ণবিদ্বেষ, মেগানের উপর মানসিক নির্যাতন-সহ বেশ কিছু অভিযোগ তুলে বাকিংহাম থেকে আলাদা হয়ে গিয়েছিলেন হ্যারি। দাদুর শেষকৃত্যে তিনি আবার পরিজনের সঙ্গে একত্রিত হবেন। ফিলিপের প্রয়াণে শোকপ্রকাশ করতে গিয়ে রাজপরিবারের অন্দরের অশান্তি নিয়ে মুখ খুলেছেন প্রাক্তন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জন মেজর-ও। তিনি বলেন, ‘‘প্রিন্স ফিলিপের অন্ত্যেষ্টি রাজপরিবারের দু’পক্ষের সামনেই মনোমালিন্য মুছে ফেলার সুযোগ করে দিয়েছে।’’

Advertisement

১৫ বছরের বেশি সময় আগে ফিলিপ যে ল্যান্ড রোভারের নকশা তৈরিতে সাহায্য করেছিলেন সেটিকেও তাঁর অন্ত্যেষ্টিতে শামিল করা হচ্ছে। আদতে সেটি ডিফেন্ডার ১৩০ গান বাসের পরিমার্জিত রূপ বলে শোনা যাচ্ছে। বাকিংহাম প্রাসাদের তরফে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, সেন্ট জর্জেস চ্যাপেলের ফটক থেকে ৮ মিনিটের যে শোকযাত্রা হবে, তাতে ওই ল্যান্ড রোভারটি ফিলিপের কফিন বহন করবে। রাজপরিবারের সদস্যেরা কফিনবাহী গাড়ির পিছনে হাঁটবেন। ফিলিপের ব্যক্তিগত ইচ্ছেকে মর্যাদা দিয়েই শেষযাত্রার এই পরিকল্পনা।

১০ ডাউনিং স্ট্রিট এক বিবৃতিতে কাল বলেছে, কোভিড-বিধির কারণে শেষকৃত্যে যোগ দেবেন না প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

Advertisement