Advertisement
২৯ জানুয়ারি ২০২৩
new york

Supersonic Flights: সাড়ে ৩ ঘণ্টায় নিউ ইয়র্ক থেকে লন্ডনে পাড়ি? সম্ভব হতে পারে ৮ বছরেই

গোটা পরিকল্পনাটি বাস্তবে পরিণত হলে বিমান পরিবহণ ব্যবস্থায় যুগান্তকারী বদল ঘটতs পারে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

প্রতীকী ছবি।

সংবাদ সংস্থা
নিউ ইয়র্ক শেষ আপডেট: ০৪ জুন ২০২১ ১৭:৩৮
Share: Save:

নিউ ইয়র্ক থেকে লন্ডনে উড়ে যেতে সময় লাগবে মাত্র সাড়ে ৩ ঘণ্টা? ২০২৯ সালে এমনটাই সম্ভব হবে বলে দাবি করল আমেরিকার বিমান সংস্থা ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স। বছর আটেক পরের এই সম্ভবনাকে বাস্তবে পরিণত করতেই বুম সুপারসনিক নামে একটি স্টার্টআপ সংস্থার কাছ থেকে ১৫টি সুপারসনিক বিমান কেনার হবে বলে জানিয়েছেন ওই সংস্থার সিইও স্কট কার্বি।

বৃহস্পতিবার ইউনাইটেডের তরফে জানানো হয়েছে, ডেনভারের ওই স্টার্টআপ সংস্থার কাছ থেকে তাদের সুপারসনিক বিমান ‘ওভারচার’ কেনার চুক্তি করেছেন তারা। চুক্তিতে আরও ৩৫টি সুপারসনিক বিমান কেনার বিকল্পও রাখা হয়েছে।

গোটা পরিকল্পনাটি বাস্তবে পরিণত হলে বিমান পরিবহণ ব্যবস্থায় যুগান্তকারী বদল ঘটতে পারে বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল। এক একটি সুপারসনিক বিমান শব্দের থেকে দ্বিগুণ গতিবেগে আকাশপথে পাড়ি দিতে পারে। এই মুহূর্তে নিউ ইয়র্ক থেকে লন্ডনে সাড়ে ৬ ঘণ্টায় যাওয়া যায়। তবে বুমের তরফে জানানো হয়েছে, ৬৫ থেকে ৮৮টি আসনের একটি সুপারসনিক বিমান সে পথ পাড়ি দিতে তার অর্ধেক সময় নেবে।

বিমান পরিবহণে আমূল পরিবর্তন ঘটানোর সম্ভাবনা তৈরি হলেও আদৌও তা বাস্তবায়িত হবে কি না, তা নিয়ে অবশ্য প্রশ্নও রয়েছে। মাইকেল মেরলুজৌ নামে এক পরামর্শদাতা বলেন, “এই পরিকল্পনাটা যথেষ্ট আকর্ষণীয় বটে। তবে আমাদের এ নিয়ে বাস্তববাদী হওয়া প্রয়োজন।” তাঁর মতে, গোটা প্রকল্প বাস্তবায়িত করতে অন্তত হাজার থেকে পনেরোশো কোটি ডলারের বিনিয়োগ প্রয়োজন। তাঁর মতে, ২০২৯ নয়, বাণিজ্যিক ভাবে এ ধরনের বিমান পরিষেবা চালু হতে ২০৩৫-’৪০ সাল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.