Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Pakistan

অভিনন্দন বর্তমান নিয়ে মন্তব্য, বিরোধী নেতার বিরুদ্ধে বিশ্বাসভঙ্গের মামলা করছে পাকিস্তান

পাকিস্তান মুসলিম লিগ(এন)-এর সদস্য আয়াজ সাদিকের মন্তব্যে তোলপাড় হয় পাক পার্লামেন্ট। তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জোরালো দাবি ওঠে।

ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান এবং পাকিস্তানের বিরোধী দলনেতা আয়াজ সাদিক।

ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান এবং পাকিস্তানের বিরোধী দলনেতা আয়াজ সাদিক।

সংবাদ সংস্থা
ইসলামাবাদ শেষ আপডেট: ০২ নভেম্বর ২০২০ ১১:৪৫
Share: Save:

ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান নিয়ে মন্তব্যের জেরে পাক সরকারের রোষের মুখে পড়লেন সে দেশের বিরোধী দলনেতা আয়াজ সাদিক। তাঁর বিরুদ্ধে বিশ্বাসভঙ্গের মামলা করতে চলেছে পাক সরকার।

গত ২৯ অক্টোবর পাকিস্তানের পার্লামেন্টে পাকিস্তান মুসলিম লিগ(এন)-এর সদস্য তথা বিরোধী দলনেতা আয়াজ সাদিক অভিযোগ করেন, সৌজন্যের বার্তা দিতে নয়, ভারতের প্রত্যাঘাতের ভয়েই অভিনন্দন বর্তমানকে মুক্তি দিয়েছিল ইমরান খানের সরকার। সেখানেই থামেননি তিনি। এর পর বলেন, ভয়ে সে দিন সেনাপ্রধান কমর বাজওয়ার পা কাঁপছিল। শুধু তাই নয়, সাদিক দাবি করেন পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি সে দিন ভারতের সম্ভাব্য হামলার খবর জানিয়ে অভিনন্দনকে মুক্তি দেওয়ার কথা ঘোষণা করেন।

সাদিকের এই মন্তব্যে তোলপাড় হয় পাক পার্লামেন্ট। তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জোরালো দাবি ওঠে। এর পরই সাদিকের বিরুদ্ধে মামলার সিদ্ধান্ত নেয় পাকিস্তান সরকার। দেশের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রী এজাজ শাহ বলেন, সরকার সাদিকের বিরুদ্ধে বিশ্বাসভঙ্গের মামলা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে পুলিশের কাছে। ভারতের হয়ে যাঁরা কথা বলবেন তাঁদের এ দেশে থাকার কোনও অধিকার নেই বলেও জানান এজাজ।

সাদিকের নামে পাকিস্তানে এমনই পোস্টার পড়েছে। ছবি: টুইটার থেকে।

সাদিকের মন্তব্য নিয়ে যেমন পাক পার্লামেন্টে ডামাডোল চলছে, তেমনই সে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সাদিকের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন বহু মানুষ। লাহৌরে তাঁর পোস্টারে ‘প্রতারক’ লিখে ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। কোথাও আবার অভিনন্দন বর্তমানের সঙ্গে সাদিকের ছবি দিয়ে বলা হয়েছে— মীর সাদিক…মীর জাফর…আয়াজ সাদিক।

আরও পড়ুন: অবৈধ দখলদারি লুকোতে গিলগিট-বালটিস্তানকে নুতন প্রদেশ ঘোষণা, কড়া প্রতিক্রিয়া ভারতের

সাদিককে প্রতারক বলায় তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে তাঁর দল পিএমএল-এন। দলের এক নেতা আজমা বোখারি বলেন, যাঁরা সাদিককে প্রতারক বলছেন, তাঁদের বিরুদ্ধেই অনেক ফৌজদারি মামলা রয়েছে।

২০১৯ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের খাইবার-পাখতুনখোয়া প্রদেশের বালাকোট শহরের অদূরে জঙ্গি শিবিরে অভিযান চালিয়েছিল ভারতীয় বায়ুসেনার মিরাজ-২০০০ যুদ্ধবিমান। জবাবে ২৭ ফেব্রুয়ারি ভারতের আকাশসীমা লঙ্ঘন করে হামলা চালায় পাক বায়ুসেনা। সে সময় হামলাকারী এফ-১৬ বিমানের পিছু ধাওয়া করেন উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমান। নিজের মিগ-২১ বাইসন যুদ্ধবিমান নিয়ে আকাশসীমা পেরিয়ে ঢুকে পড়েন পাক অধিকৃত কাশ্মীরে। এর পরে আহত অবস্থায় পাক সেনার হাতে বন্দি হন তিনি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE