×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১১ মে ২০২১ ই-পেপার

আত্মার টান! ২২ বছর পর স্কুলের বন্ধুকে বিয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০৮ মে ২০১৯ ১৮:৩৯
ছোটবেলা ও বিয়ের সাজে নাতালি ও অস্টিন। ছবি : টুইটার থেকে নেওয়া।

ছোটবেলা ও বিয়ের সাজে নাতালি ও অস্টিন। ছবি : টুইটার থেকে নেওয়া।

একেই বলে আত্মার টান। প্রিস্কুলে এক সঙ্গে পড়াশোনা-খেলাধুলো। তারপর ১২ বছরের বিচ্ছেদ। কিন্তু তাও যেন তাদের আলাদা করতে পারেনি। ভাগ্য তাদের ফের মিলিয়ে দিল।

নাতালি ক্রো (ছাত্রী) ও অস্টিন ট্যাটম্যান (ছাত্র) ফ্লোরিডার ওকালাতে একসঙ্গে প্রিস্কুলে পড়াশোনা করত। সেই সময়কার তাদের এক শিক্ষিকা জানিয়েছেন, দু’জনে সব সময় একসঙ্গে থাকত। তখনই তাঁর মনে হয়েছিল, এদের বন্ধুত্বটা একটু স্পেশাল।

নাতালি ও অস্টিন পাঁচ বছর বয়সে আলাদা হয়ে যায়। ক্রোয়ের পরিবার ১০০০ মাইল দূরে কানেটিকাটে চলে যায়। ছিন্ন হয়ে যায় সব যোগাযোগ। কিন্তু আত্মার টানটা যে রয়ে গিয়েছিল, বোঝা যায় ১২ বছর পর। ক্রো এক পুরনো ঠিকানার বই থেকে অস্টিনের ঠিকানা খুঁজে পায়। তা ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় খুঁজতে শুরু করে অস্টিন ট্যাটম্যানকে। এক সময় খুঁজে পায় দুজনে দুজনকে।

Advertisement

ফের ১২ বছর পর দুজনে পরস্পরকে মেসেজ করতে থাকে। এই ১২ বছরে দুজনের মধ্যে দেখা হওয়া তো দূরের কথা, ফোনেও কোনও যোগাযোগ ছিল না। সেই ১২ বছরের জমে থাকা সব কথা বলতে শুরু করে দু’জনে। যত পুরনো স্মৃতি ফিরে ফিরে আসে ১২ বছর পর সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে।

আরও পড়ুন : চতুর্থ বিয়ে সারলেন তাইল্যান্ডের রাজা

আরও পড়ুন : কয়েকশো পড়ুয়া এল মিষ্টি ঠাকুমাকে বিদায় জানাতে

তারা ফের দেখা করার সিদ্ধান্ত নেয়। দুজনে দুজনের সঙ্গে একান্তে সময় কাটাতে শুরু করে। ক্রো জানিয়েছে, তখনই সে বুঝতে পারে এই আমার জীবনসঙ্গী হবে। অবশেষে দুজনে সিদ্ধান্ত নেয় তারা বিয়ে করবে। এখন তারা সুখী দম্পতি।

তাদের বিয়ের অ্যালবামে জায়গা করে নিয়েছে পুরনো দিনের তাদের সেই সব ছবিও।

Advertisement