×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৮ মে ২০২১ ই-পেপার

মানবদেহে বার্ড ফ্লু-র সংক্রমণ বিশ্বে এই প্রথম? রুশ দাবি মানতে নারাজ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

সংবাদ সংস্থা
মস্কো ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১০:৫৪
পশুখামার থেকেই ৭ জন কর্মী সংক্রমিত হয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে, দাবি রাশিয়ার।

পশুখামার থেকেই ৭ জন কর্মী সংক্রমিত হয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে, দাবি রাশিয়ার।
প্রতীকী ছবি।

এই প্রথম মানবদেহে বার্ড ফ্লু ভাইরাসের একটি প্রজাতির সংক্রমণ দেখা দিয়েছে বলে দাবি করল রাশিয়া। রুশ সংবাদমাধ্যমের দাবি, সে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের একটি পশুখামারে ৭ জন কর্মীর দেহে বার্ড ফ্লু-র একটি প্রজাতি (এইচ৫এন৮)-র সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এই দাবি ঘিরে রুশ চিকিৎসক মহলের বড় অংশের কপালে ভাঁজ। কারণ এখনও করোনাকেই ঠিক মতো মোকাবিলা করা যায়নি, তার উপর যদি নয়া সংক্রমক ব্যাধি দেখা দেয়, তা হলে সামলানো সমস্যা হবে। যদিও রাশিয়ার এই দাবিকে এখনও মান্যতা দেয়নি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। তারা জানিয়েছে, মানবদেহে বার্ড ফ্লু সংক্রমণের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে তারা এই দাবি উড়িয়েও দেয়নি।

শনিবার রুশ টেলিভিশনে সে দেশের উপভোক্তা এবং মানবাধিকার সংগঠনের প্রধান আনা পোপোভা জানিয়েছেন, আক্রান্ত ওই ৭ জনের থেকে বার্ড ফ্লু-র প্রজাতিটির জিনের উপাদান সংগ্রহ করেছেন ভেক্টর ল্যাবরেটরির গবেষকেরা। তিনি বলেন, ‘‘গত ডিসেম্বরেই ওই খামারে বার্ড ফ্লু-র প্রকোপ দেখা দিয়েছিল। এর পর বেশ কিছু দিন আগে মানবদেহেও সংক্রমণ ঘটে। তার ফলাফল নিয়ে পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়ার পরই এ খবর দেওয়া হচ্ছে।’’ তবে ওই কর্মীরা আক্রান্ত হলেও তাঁদের মধ্যে কোনও উপসর্গ দেখা দেয়নি বলে জানিয়েছেন পোপোভা। খামার থেকেই তাঁরা সংক্রমিত হয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে। পোপোভা বলেন, ‘‘বার্ড ফ্লু-তে সংক্রমণের যাবতীয় তথ্য ইতিমধ্যেই হু-কে জানানো হয়েছে।’’ যদিও পোপোভার দাবি, ‘‘ওই ৭ জন ছাড়া আর কারও দেহে সংক্রমণের চিহ্ন ধরা পড়েনি।’’

তবে এ বিষয়ে এখনই কোনও মন্তব্য করতে নারাজ হু। সংস্থার এক মুখপাত্রের কথায়, ‘‘এ নিয়ে নিশ্চিত হওয়ার পর বলা যেতে পারে, এইচ৫এন৮ প্রজাতি মানবদেহে প্রথম বার সংক্রমণ ঘটিয়েছে।’’ তবে যদি তা সত্যিই প্রমাণিত হয়, তা হলে রুশ চিকিৎসক মহলের চিন্তার কারণে যুক্তি থাকবে।

Advertisement

সম্প্রতি ভারতেও বার্ড ফ্লু বা আভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জার প্রকোপ দেখা দিয়েছে। গত কয়েক মাসে রাশিয়া ছাড়াও ইউরোপ, পূর্ব ও উত্তর আফ্রিকা এবং চিন-সহ এশিয়ার বিভিন্ন দেশে বার্ড ফ্লু-র এই প্রজাতির (এইচ৫এন৮) সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তবে সবক’টি ক্ষেত্রেই সংক্রমণ পশুখামার পর্যন্তই সীমাবদ্ধ ছিল। এখনও পর্যন্ত মানবদেহে বার্ড ফ্লু-র সংক্রমণ ঘটেনি বলেই দাবি গবেষকদের। যদিও মানবদেহে বার্ড ফ্লু-র অন্যান্য প্রজাতির (এইচ৫এন১, এইচ৭এন২ এবং এইচ৯এন২) সংক্রমণ ঘটতে পারে বলেও জানিয়েছেন তাঁরা।

মানবদেহে বার্ড ফ্লু-র সংক্রমণ ধরার পর এর প্রতিষেধক তৈরিতে জোর দিয়েছেন সাইবেরিয়ার ভেক্টর ইনস্টিটিউট-এর গবেষকরা। তাঁরা জানিয়েছেন, এইচ৫এন৮-এর প্রতিষেধক তৈরির চেষ্টা চলছে। মানবদেহে পরীক্ষানিরীক্ষাও করা শুরু হবে।

Advertisement