Advertisement
০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Mamhatma Gandhi

ওয়াশিংটনে মহাত্মা গাঁধীর মূর্তি ভাঙচুর, ক্ষমা চাইল আমেরিকা

এই ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ওয়াশিংটনে ভারতীয় দূতাবাস। তারা মার্কিন প্রশাসনকে বিষয়টি জানানোর পাশাপাশি এ বিষয়ে একটি মামলাও দায়ের করেছে।

ঢেকে রাখা হয়েছে ভাঙচুর হওয়া সেই গাঁধী মূর্তি।

ঢেকে রাখা হয়েছে ভাঙচুর হওয়া সেই গাঁধী মূর্তি।

সংবাদ সংস্থা
ওয়াশিংটন শেষ আপডেট: ০৪ জুন ২০২০ ১৮:৩৮
Share: Save:

জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুতে বিক্ষোভের মধ্যেই ওয়াশিংটনে ভারতীয় দূতাবাসের সামনে মহাত্মা গাঁধীর মূর্তিতে ভাঙচুর চালানো হল। সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, ২-৩ জুনের মধ্যেই রাতে এই হামলা চালানো হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। সন্দেহ করা হচ্ছে, বিক্ষোভকারীরাই এমন ঘটনা ঘটিয়েছে।

Advertisement

এই ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে ওয়াশিংটনে ভারতীয় দূতাবাস। তারা মার্কিন প্রশাসনকে বিষয়টি জানানোর পাশাপাশি এ বিষয়ে একটি মামলাও দায়ের করেছে। সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানাচ্ছে, ঘটনাটি নিয়ে ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে স্থানীয় প্রশাসন।

ঘটনাটি নিয়ে দুঃখপ্রকাশ করে ক্ষমা চেয়েছে আমেরিকা। ভারতে মার্কিন রাষ্ট্রদূত কেনেথ জাস্টার এ প্রসঙ্গে টুইট করে বলেন, “ওয়াশিংটনে গাঁধী মূর্তিতে হামলা অত্যন্ত ন্যক্কারজনক। আমরা এই ঘটনার জন্য ক্ষমাপ্রার্থী। জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যু নিয়ে গোটা গোটা দেশে বিক্ষোভ, ভাঙচুর চলছে। আমরা বৈষম্যের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াব। এই অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে পারব।”

গাঁধীজির মূর্তিটিকে আপাতত ঢেকে রাখা হয়েছে। ২০০০ সালে প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী যখন মার্কিন সফরে গিয়েছিলেন, তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিন্টনের উপস্থিতিতে এই মূর্তিটি উন্মোচন করা হয়েছিল।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.