Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা খামেনেইয়ের নামে ‘ভুয়ো অ্যাকাউন্ট’ বন্ধ করা হয়েছে, জানাল টুইটার

সংবাদ সংস্থা
দুবাই ২২ জানুয়ারি ২০২১ ২৩:৩৮
আয়াতোল্লা আলি খামেনেই। ফাইল চিত্র।

আয়াতোল্লা আলি খামেনেই। ফাইল চিত্র।

ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতোল্লা আলি খামেনেইয়ের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হয়নি। জানিয়ে দিল টুইটার। তবে ‘@খামেনেই_সাইট’ নামে একটি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করা হয়েছে। টুইটারের এক মুখপাত্রের দাবি, এই অ্যাকাউন্ট থেকে নিয়মবিরুদ্ধ কাজ করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, এটি একটি ভুয়ো অ্যাকাউন্ট। টুইটার আরও জানিয়েছে, খামেনেইয়ের যে অফিশিয়াল অ্যাকাউন্ট রয়েছে সেটি হল @খামেনেই_ফা। যা এখনও সচল রয়েছে। যদিও গোটা বিষয়টি নিয়ে খামেনেইয়ের তরফ থেকে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

হঠাৎ করেই এ দিন খামেনেইয়ের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার বিষয়টি সামনে আসে। তা নিয়ে দিনভর তুমুল চর্চা হয়। তাঁর ওই অ্যাকাউন্টে পোস্ট করা একটি ছবি এবং সেই সঙ্গে হুমকির বার্তা ঘিরেই শুরু হয় বিতর্ক। খামেনেইয়ের ওই অ্যাকাউন্টে এক জন গল্ফারের ছবি পোস্ট করা হয়েছে। যাকে দেখতে অনেকটা আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতোই। আমেরিকার ড্রোন হামলায় নিহত হয়েছিলেন ইরানের সেনা কম্যান্ডার জেনারেল কাসেম সোলেইমানি। পোস্টে সেই ঘটনার বদলা নেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে দাবি।

যে অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্টটি করা হয়েছে সেটি খামেনেইয়ের ওয়েবসাইটের সঙ্গে যুক্ত। সেখানে খামেনেইয়ের বেশ কিন্তু মন্তব্যও রয়েছে। গত ডিসেম্বরে ওই অ্যাকাউন্টেই খামেনেই লিখেছিলেন, ‘বদলা নিশ্চিত’। মনে করা হচ্ছে, তিনি যে সুলেইমানি হত্যার বদলা নিতে চাইছেন, সেটাই বার্তা দিতে চেয়েছেন ওই পোস্টের মাধ্যমে।

Advertisement

ক্যাপিটলে হামলার পিছনে উস্কানির অভিযোগ উঠেছিল ট্রাম্পের বিরুদ্ধে। টুইটার প্ল্যাটফর্মকে ব্যবহার করে তাঁর সমর্থকদের হিংসায় ইন্ধন জোগানোর অভিযোগ ওঠে। সেই ঘটনা নিয়ে ব্যাপক শোরগোল হয়। প্রশ্নের মুখে পড়তে হয় টুইটারকেও। তড়িঘড়ি তারা ট্রাম্পের টুইট অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়। উস্কানিমূলক মন্তব্যের জন্য সতর্কও করা হয় ট্রাম্পকে। এর পরই টুইটার জানিয়ে দেয়, কোনও উস্কানিমূলক পোস্ট বা মন্তব্যের জন্য তাদের প্ল্যাটফর্মকে ব্যবহার করা যাবে না।

আরও পড়ুন

Advertisement