×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৫ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

ক্যাপিটলে হামলাকারীদের জমায়েতে ভারতের জাতীয় পতাকা

সংবাদ সংস্থা
ওয়াশিংটন ০৭ জানুয়ারি ২০২১ ১৯:২১
ক্যাপিটলে হামলাকারীদের হাতে ভারতের জাতীয় পতাকা। ছবি: টুইটার থেকে।

ক্যাপিটলে হামলাকারীদের হাতে ভারতের জাতীয় পতাকা। ছবি: টুইটার থেকে।

‘স্টারস অ্যান্ড স্ট্রাইপ্‌স’-এর পাশেই ‘ট্রাইকালার’। বুধবার আমেরিকার কংগ্রেসের ক্যাপিটল বিল্ডিংয়ে হামলাকারীদের হাতে আমেরিকার জাতীয় পতাকার পাশাপাশি ছিল ভারতের জাতীয় পতাকাও। আর তাই ঘিরে বিতর্ক দানা বেঁধেছে আমেরিকার নেটাগরিকদের একাংশের মধ্যে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় সামনে আসা ভিডিয়োয় (যার সত্যতা এখনও যাচাই হয়নি) দেখা যাচ্ছে, ওয়াশিংটন ডিসি-র ক্যাপিটল বিল্ডিংয়ের সামনে বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনান্ড ট্রাম্পের ছবি নিয়ে জড়ো হয়েছেন তাঁর সমর্থকেরা। সেখানে অন্তত একজনের হাতে রয়েছে ভারতের জাতীয় পতাকা। এক নেটাগরিক লিখেছেন, ‘এখানে ভারতীয় পতাকার উপস্থিতি অত্যন্ত বিরক্তিকর’। এমনকি, ভিডিয়োয় দেখা যাচ্ছে আমেরিকা এবং ভারতের জাতীয় পতাকার পাশাপাশি জমায়েতে ঠাঁই পেয়েছে ‘কনফেডারেট’ পতাকাও!

Advertisement

১৮৬১ সালে ক্রীতদাস প্রথার সমর্থক ১১টি রাজ্য আমেরিকা থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে ‘কনফেডারেট স্টেটস’ গঠন করেছিল। দীর্ঘ চার বছর গৃহযুদ্ধের পরে ‘কনফেডারেট স্টেটস’কে পরাজিত করে আমেরিকাকে ফের ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন আব্রাহাম লিঙ্কন। ঘটনাচক্রে, দাসপ্রথা বিরোধী লিঙ্কনের দল রিপাবলিকান পার্টিরই নেতা বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

আরও পড়ুন: প্রেসিডেন্ট ভোটে বাইডেনের জয় অনুমোদন কংগ্রেসের, মানলেন ট্রাম্পও

ক্যাপিটলে হামলাকারী ট্রাম্প সমর্থদের জমায়েতে ভারতের জাতীয় পতাকার উপস্থিতির ‘প্রভাব’ নয়াদিল্লি-ওয়াশিংটন সম্পর্কে পড়তে পারে বলে কূটনীতিকদের একাংশ। প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে আমেরিকা সফরে গিয়ে হিউস্টনে অনাবাসী ভারতীয়দের ‘হাউডি মোদী’ অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেখানে তাঁর মুখে শোনা গিয়েছিল, ‘অব কি বার, ট্রাম্প সরকার’ স্লোগান। সে সময়ও আমেরিকার অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে মোদীর ‘অংশগ্রহণ’ নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছিল।

আরও পড়ুন: দুধে সোনা, খুনে ভূমিকম্প! অনলাইনে সরকারি গো-পরীক্ষা

Advertisement