×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১২ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

কে হবে ‘উৎসবের সেরা স্টার’?

বিজ্ঞাপন প্রতিবেদন
১৭ অক্টোবর ২০২০ ১৪:১৪

দুর্গা পুজো নিয়ে বাঙালির উত্তেজনা চিরকালের। আর সেই কারণেই এই উৎসবকে ঘিরে বাঙালির হৃদয় জুড়ে রয়েছে এক গভীর ভালোবাসা। সেই ভালোবাসার ছোঁয়াকেই আরও একটু সুন্দর, সুমধুর করে তুলতে এই বছর স্টার জলসা নিয়ে এসেছে একটি বিশেষ উপস্থাপনা।

এই প্যান্ডেমিক পরিস্থিতিতে পুজোর স্বাদ কিছুটা হলেও ভিন্ন। তবুও প্রতিটি বাড়ির অন্দরেই এই উৎসবকে ঘিরে গড়ে ওঠা উত্তেজনা এতটুকুও ফিকে পড়বে না। করোনা আবহে সমস্ত সাবধানতা মেনেই, আম বাঙালি মেতে উঠবে পুজোর সাজে। কারণ পরিস্থিতি যাই হোক না কেন, তার জন্য সারা বছর যে উৎসবের জন্য অপেক্ষা করে থাকা, তার উদযাপন বাদ যায় কি করে?

সেই সমস্ত কথা মাথায় রেখেই পুজোর এই দিনগুলিকে আরও আনন্দমুখর করে তুলতে স্টার জলসা নিয়ে এয়েছে একটি বিশেষ উদ্যোগ, যার নাম 'উৎসবের সেরা স্টার'। আর এই উদ্যোগে ইতিমধ্যেই সারা দিয়েছে বাংলার অধিকাংশ পুজো কমিটিই।

Advertisement

উৎসবের সেরা স্টার এমন একটি উদ্যোগ যা এই বছর পুজোকে আরও বেশি সুন্দর ও দায়িত্বশীল করে তুলবে। যে পুজো প্যান্ডেল সবচেয়ে বেশি সাবধানতা মেনে চলবে, তারাই জিতে নেবে স্টার জলসার পক্ষ থেকে উৎসবের সেরা স্টার ২০২০। এই বছর সমস্ত সাবধানতা মেনেই উৎসবের দিনগুলিকে করে তুলতে হবে সুমধুর। আর তার জন্য অনেক বেশি সতর্ক, সাবধান ও একই সঙ্গে দায়িত্ববান হয়ে উঠতে হবে পুজো কমিটিগুলিকে।

এই কোভিড পরিস্থিতিতে পুজো কমিটিগুলি তাদের মন্ডপে আগত দর্শনার্থীদের কথা মাথায় রেখে আরও বেশি সাবধানতা মেনে চলবেন এবং আরও বেশি দায়িত্ব সহকারে এই ভূমিকা পালন করবেন। প্রতিযোগীতার নিরিক্ষণে কিছু শর্ত রাখা হয়েছে। যার ভিত্তিতে সেরার সেরা শিরোপা তুলে দেওয়া হবে পুজো কমিটিগুলিকে।

সেরা ১০ টি পুজো মন্ডপকে উৎসবের সেরা স্টার করে তুলতে হলে নজর দিতে হবে বেশ কয়েকটি বিষয়ের উপর। এদের মধ্যে প্রথমেই রয়েছে দর্শনার্থীদের ভিড় নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা। পুজো কমিটিগুলিকে বিশেষ নজর দিতে হবে মন্ডপে আগত দর্শনার্থীদের ওপর। যাতে সকল দর্শনার্থীদের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব বজায় থাকে এবং প্রত্যেকেই যাতে ষথেষ্ট সতর্কতা অবলম্বন করে সে বিষয় খেয়াল রাখতে হবে। শুধু তাই নয়, মন্ডপে আগত প্রত্যেক দর্শনার্থী ও স্থানীয় আবাসিকদের মধ্যেও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য যথাসম্ভব জনসংযোগ ও প্রচারের মাধ্যমে সকলকে সাবধান করতে হবে পুজো কমিটিগুলিকে। মাতৃপক্ষের সূচনা অর্থাৎ মহালয়ার দিন থেকেই এই উদ্যোগ নিতে হবে প্রত্যেক পুজো কমিটিগুলিকে। যেহেতু অন্যান্য বছরের থেকে এই বছরের পুজো একটু আলাদা, সেহেতু যে পুজো সমাজের স্বার্থে যত বেশি সতর্কতা অবলম্বন করতে পারবে, সেই পুজোই জিতে নিতে পারবে এই পুরস্কার।

স্টার জলসার মুখপত্র এই বিষয় জানিয়েছেন, প্রতিটি পুজো প্যান্ডেলগুলির মধ্যে থেকে সেরা ১০টি দায়িত্বশীল পুজো প্যান্ডেলকে বেছে নেবে স্টার জলসা। যে প্যান্ডেলগুলি যত বেশি সাবধানতা বজায় রাখবে তারাই পেয়ে যাবে উৎসবের সেরা স্টার-এর তকমা। এই মুহূর্তে এই ক্যাম্পেইনের স্ক্রিনিংও শুরু হয়ে গিয়েছে এবং ২২ অক্টোবর সেরা ১০টি প্যান্ডেলের বিজেতার নাম ঘোষণা করবে স্টার জলসা।

তাই এই বছর পুজোর আনন্দকে বজায় রাখার পাশাপাশি নিজেকে হতে হবে আরও সতর্ক। করোনা আবহে নিজেকে, নিজের পরিবারকে এবং পারিপার্শ্বিক পরিবেশকে সুস্থ রাখতে হয়ে উঠতে হবে আরও বেশি দায়িত্বশীল। স্টার জলসা সর্বদাই নতুন ভাবনার মাধ্যমে দর্শক মন আনন্দিত করে তুলেছে। এই বছরে পুজোর এই পরিকল্পণাও তারই একটা অংশ। এই পরিকল্পনায় আপনাদের সঙ্গে পেয়ে আমরা অভিভূত।

Advertisement