• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মূল্যবৃদ্ধি রুখতে চিনি রফতানিতে ২০% শুল্ক

গমে এখনই উঠছে না ২৫% আমদানি শুল্ক

Wheat

ডাল, আলুর দামের পাশাপাশি বাজার খরচ বাড়িয়ে দুশ্চিন্তা বাড়াচ্ছে চিনি। দেশে জোগান বাড়িয়ে তার মূল্যবৃদ্ধিতে রাশ টানতে তাই চিনির উপর ২০ শতাংশ রফতানি শুল্ক বসাল কেন্দ্র। কারণ তার দর ইতিমধ্যেই কেজিতে ৪০ টাকা ছাড়িয়েছে। অন্য দিকে, চাষিদের স্বস্তি দিতে গম আমদানির উপর ২৫ শতাংশ শুল্ক বহাল রাখার সিদ্ধান্তের কথা জানালেন কেন্দ্রীয় খাদ্যমন্ত্রী রাম বিলাস পাসোয়ান। কারণ, ইতিমধ্যেই গম উৎপাদনে বিশ্বে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ভারতে সরকারি গুদামে গমের মজুত ভাণ্ডার ৪ কোটি টন ছাড়িয়েছে, যা নির্ধারিত সরকারি সীমার (১ জুলাই পর্যন্ত) চেয়ে অন্তত ১.২ কোটি টন বেশি।

গমের উপর এই আমদানি শুল্কের মেয়াদ তিন মাসের জন্য বাড়ানো হয় মার্চেই। সে হিসাবে ৩০ জুনের পরে ওই শুল্ক উঠে যাওয়ার কথা ছিল। বস্তুত, গম ও আটা-ময়দার চড়া দাম কিছুটা কমিয়ে আনতে ২৫ শতাংশ আমদানি শুল্ক বাতিল করা নিয়ে কথাবার্তা শুরু করেছিল খাদ্য মন্ত্রক ও অর্থ মন্ত্রক। তবে কৃষি মন্ত্রকের আগাম হিসাব অনুসারে গমের উৎপাদন ২০১৫-’১৬ চাষের মরসুমে (জুলাই থেকে জুন) বেড়ে দাঁড়াবে ৯ কোটি ৪০ লক্ষ ৫০ হাজার টন। আগের বারের উৎপাদন ৮ কোটি ৬৫ লক্ষ ৩০ হাজার টন। এই বাড়তি উৎপাদনের ভরসাতেই আমদানি শুল্ক বহাল রাখার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র।

কারণ হিসাবে সরকারি সূত্রে জানানো হয়েছে, বিশেষ করে দক্ষিণ ভারতের কিছু রাজ্যের পক্ষে অস্ট্রেলিয়ার মতো দেশ থেকে গম আমদানি করতে খরচ কম পড়ে। বরং উত্তর ও মধ্য ভারত থেকে গম পরিবহণের খরচ তাদের পক্ষে বেশি। তাই পিৎজা-পাস্তা তৈরির জন্য প্রোটিন সমৃদ্ধ ময়দা উৎপাদনে অনেক মিলই আমদানি করা গম ব্যবহার করে। কিন্তু তাতে দেশের চাষিরা মার খেতে পারেন, এই আশঙ্কাতেই আমদানি শুল্ক বহাল রাখল কেন্দ্র।

এ দিকে চিনিতে রফতানি শুল্ক বসায় শুক্রবার চিনি সংস্থাগুলির শেয়ার দর পড়েছে ১০ শতাংশ পর্যন্ত, যদিও এ দিন সাধারণ ভাবে চাঙ্গাই ছিল শেয়ার বাজার।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন