• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

প্রত্যাশা মতো ঘোষণা অ্যাপলের, ভারতে ওয়াচ-আইপ্যাডের দাম কত হবে জানেন?

apple product
‘সেপ্টেম্বর ইভেন্টে’ ঘোষণা করা হল অ্যাপলের বিভিন্ন পণ্যের। ছবি টুইটার থেকে নেওয়া।

প্রত্যাশা মতোই অ্যাপলের সেপ্টেম্বরের ‘টাইম ফ্লাইজ’ অনুষ্ঠানে ঘোষণা হল না ৫-জি আইফোনের। অনুষ্ঠান শুরুর পর সংস্থার সিইও টিম কুক জানিয়ে দিলেন ১৫ সেপ্টেম্বরের অনুষ্ঠানে তাঁদের ‘ফোকাস’ মূলত আইপ্যাড ও অ্যাপল ওয়াচের উপর। করোনা আবহের এই কঠিন সময়ে অ্যাপলের শ্রীবৃদ্ধিতে ওই দু’টি পণ্য ‘গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা’ নেবে বলে আশা কুকের।

আইফোন-১২’র কথা অনুষ্ঠান জুড়ে না এলেও, অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৬, আইপ্যাড এয়ার, জেনারেশন-৮ আইপ্যাড, বেশ কিছু পরিষেবা ভবিষ্যতে আসবে বলে জানানো হল ‘টাইম ফ্লাইজে’।

অনুষ্ঠানের শুরুতে কুকের বক্তব্যের পর মঞ্চের দখল নিলেন অ্যাপল-এর চিফ অপারেটিং অফিসার জেফ উইলিয়ামস। ঘোষণা হল অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৬-এর। এই পণ্যকে অ্যাপলের ‘সবথেকে রঙিন’ প্রডাক্ট হিসাবে অ্যাখ্যা দিলেন। জানালেন পূর্ববর্তী সিরিজের ওয়াচের থেকে ৬ সিরিজ কতটা অভিনব।

অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৬—

অ্যাপলের আগের ওয়াচগুলিতে ইসিজি, ফিটনেস ট্রাকারের মতো বিভিন্ন সুবিধা ছিলই। ৬ সিরিজে যুক্ত হল রক্তের অক্সিজেনের মাত্রা নির্ণায়ক ফিচার। হার্ট রেটও নির্ণয় করবে এই ওয়াচ। সিলিকনের তৈরি এই অ্যাপল ওয়াচ পাওয়া যাবে সাতটি আকর্ষণীয় রঙে। ভারতের বাজারে অক্টোবরেই পাওয়া যাবে এটি। শুধু মাত্র জিপিএস সুবিধাযুক্ত ওয়াচের ভারতের বাজারে দাম হবে ৪১ হাজার টাকা মতো। জিপিএস ও সেলুলার উভয় সুবিধাযুক্ত ৬ সিরিজের ওয়াচের দাম হবে ৫০ হাজার টাকা।

অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৬-এর মডেল। ছবি টুইটার থেকে নেওয়া।

অপেক্ষাকৃত কম দামের অ্যাপল ওয়াচ এসই আনার কথাও এ দিন ঘোষণা করা হয়েছে। এসব সিরিজের ওয়াচের দাম থাকবে ৩০-৩৪ হাজারের ঘরে।

আইপ্যাড এয়ার (২০২০)—

১৫ সেপ্টেম্বর আইপ্যাড এয়ার লঞ্চের কথাও ঘোষণা করা হয়েছে। সিঙ্গল ক্যামেরা ছাড়াও এতে থাকবে ১০.৯ ইঞ্চির লিকুইড রেটিনা ডিসপ্লে। এর হোম বাটনে যুক্ত হয়েছে টাচ আইডি ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সর। অ্যাপলের তরফে জানানো হয়েছে, এই আইপ্যাডের সিপিইউ-র কর্মক্ষমতা আগের ভার্সনের থেকে ৪০ শতাংশ ভাল। সেই সঙ্গে ইউএসবি-সি টাইপ পোর্ট যোগ করা হয়েছে দ্রুত চার্জিংয়ের জন্য। জেনারেশন-২ অ্যাপল পেন্সিল দিয়ে কাজ করা যাবে এই আইপ্যাড এয়ারে। শুধুমাত্র ওয়াইফাই-এর সুবিধা যুক্ত আইপ্যাড এয়ারের দাম ভারতের বাজারে প্রায় ৫৫ হাজার টাকা। ওয়াইফাই ও সেলুলার উভয় সুবিধা যুক্ত আইপ্যাডের দাম ৬৭ হাজার টাকা।

অপেক্ষাকৃত কমদামের আইপ্যাড (জেনারেশন-৮) লঞ্চের কথাও ঘোষণা করা হয় এ দিন। ৩২ জিবি ও ১২৮ জিবি কনফিগারেশনে দু’টি মডেল আনা হয়েছে। ওয়াইফাই এবং ওয়াইফাই ও সেলুলার যুক্ত মডেলের দাম যথাক্রমে ৩০ হাজার ও ৪২ হাজার টাকা মতো। এই গ্যাজেটে ব্যবহার করা যাবে জেনারেশন-১ অ্যাপল পেন্সিল। যার দাম ভারতের বাজারে সাড়ে আট হাজার টাকা।

আইপ্যাড এয়ার (২০২০)-র মডেল। ছবি টুইটার থেকে নেওয়া।

অ্যাপল ওয়ান—

করোনাভাইরাস অতিমারি থেকে বাঁচতে অধিকাংশ মানুষ নিজদের ঘরবন্দি করে রাখছেন। এই অবস্থায় গ্রাহদের ফিটনেসের ব্যাপারে  সচেতন করতে ফিটনেস প্লাস সার্ভিস এনেছে অ্যাপল। এ ছাড়াও অ্যাপল মিউজিক, অ্যাপল টিভি+, অ্যাপল নিউজ+, আইক্লাউডের মতো একাধিক পরিষেবা নিজেদের গ্রাহকদের দিয়ে থাকে অ্যাপল। সেই সব সার্ভিসকেই একত্রিত করবে অ্যাপল ওয়ান। এই পরিষেবার থেকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা অ্যাপলের বিভিন্ন সার্ভিস নিজেদের পছন্দ অনুসারে বেছে নিতে পারবেন অ্যাপল গ্রাহকরা। এই পরিষেবা নিতে এক জন ব্যক্তিকে জন্য প্রতিমাসে ১৯৫ টাকা ও একটি পরিবারকে প্রতিমাসে ৩৬৫ টাকা দিতে হবে। নির্দিষ্ট কিছু দেশেই এই পরিষেবা শুরু হবে। ভারতের গ্রাহকরা এখনই এই সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন না।

এই সব ঘোষণা হলেও আইফোনের ব্যাপারে কিছু ঘোষণা হয়নি ২০২০-র টাইম ফ্লাইজ অনুষ্ঠানে। তবে অ্যাপল নিয়ে চর্চা করা বিশেষজ্ঞদের মত এই বছরেই ঘোষণা হতে পারে ৫-জি আইফোন ১২। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন