Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

BPCL: গাড়ির চার্জিং স্টেশন খুলতে উদ্যোগ

তেল আমদানি খাতে ভারতের বিপুল খরচ কমানোর জন্য মোদী সরকার বার বারই বৈদ্যুতিক গাড়ির ব্যবহার বাড়াতে জোর দিচ্ছে।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০৬ নভেম্বর ২০২১ ০৭:৪৩
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

দু’দিন আগেই ইন্ডিয়ান অয়েল (আইওসি) জানিয়েছিল, বৈদ্যুতিক গাড়ির জন্য আগামী তিন বছরে সারা দেশে অন্তত ১০,০০০ চার্জিং স্টেশন তৈরি করবে তারা। এ বার একই পথে হাঁটার বার্তা দিল আর এক রাষ্ট্রায়ত্ত তেল বিপণন সংস্থা ভারত পেট্রলিয়াম (বিপিসিএল)। চার্জ দেওয়ার ৭০০০টি স্টেশন গড়ে তোলার পরিকল্পনা করেছে তারা। সংস্থা মনে করছে, এতে বিকল্প জ্বালানির সম্ভাবনাময় ব্যবসার সুযোগ তো কাজে লাগানো যাবেই। ভবিষ্যতে পেট্রল-ডিজ়েলের মতো প্রথাগত জ্বালানির বাজার যখন পড়বে, তখন সেই ঝুঁকিও এড়ানো সম্ভব হবে সহজেই।

তেল আমদানি খাতে ভারতের বিপুল খরচ কমানোর জন্য মোদী সরকার বার বারই বৈদ্যুতিক গাড়ির ব্যবহার বাড়াতে জোর দিচ্ছে। যদিও গোটা বিশ্বে, এমনকি উন্নত দেশেও এমন গাড়ির সংখ্যা এখনও মোট গাড়ি-বাজারের নিরিখে নগণ্য। যার অন্যতম কারণ, চার্জিং স্টেশনের মতো পরিকাঠামোর ঘাটতি এবং গাড়ির চড়া দাম। যে কারণে ক্রেতাদের অনেকেই ইচ্ছুক থাকলেও ভরসা পাচ্ছেন না।

এই অবস্থায় ভবিষ্যৎ সম্ভাবনার সুযোগ নিতে টাটা পাওয়ার বা আইওসি-র মতো বহু সরকারি-বেসরকারি সংস্থা চার্জিং স্টেশন গড়তে ঝাঁপাচ্ছে। বিপিসিএলের সিএমডি অরুণ কুমার সিংহের দাবি, দেশে তাঁদের মোট ১৯,০০০ পেট্রল পাম্পের মধ্যে ৭০০০টিতে ক’বছরে চার্জ দেওয়ার পরিকাঠামো (এনার্জি স্টেশন) গড়বেন। যে সব ব্যবসায় সংস্থা গুরুত্ব দিচ্ছে, এটি তার অন্যতম। এ ছাড়াও আছে— প্রাকৃতিক গ্যাস, অপ্রচলিত শক্তি, খুচরো ব্যবসা, পেট্রো-রসায়ন ও জৈব জ্বালানি।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement