দুর্নীতি ও ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে আরও ১৫ জন উচ্চপদস্থ আয়কর অফিসারকে অবসর নিতে বাধ্য করল কেন্দ্র। অভিযোগ, তাঁদের কেউ ঘুষের টাকা নিতে গিয়ে ধরা পড়েছেন। কেউ আবার করদাতাদের কর ফাঁকির সুযোগ করে দিয়ে, তার বিনিময়ে পাঁচতারা হোটেল বা বিলাসবহুল রিসর্টে থেকেছেন। নিখরচায় আই-প্যাডের মতো পণ্য আদায়ের নালিশও উঠেছে একাংশের বিরুদ্ধে। এ বছরে ইতিমধ্যেই চার দফায় ৪৯ জন কর অফিসারকে অবসর নিতে বাধ্য করা হয়েছে। যার মধ্যে ১২ জন রাজস্ব পরিষেবা বিভাগের উচ্চপদস্থ অফিসার ও ১৫ জন শুল্ক দফতরের কমিশনার স্তরের অফিসার ছিলেন।

সম্প্রতি আয়কর অফিসারদের একাংশের বিরুদ্ধে কর হেনস্থার অভিযোগ তুলেছিল শিল্পের একাংশ। কাফে কফি ডে-র প্রধান ভি জি সিদ্ধার্থ মৃত্যুর আগে লেখা চিঠিতে যে নালিশ করেছিলেন। এই প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও বলেন, কর দফতরের কিছু অফিসার ক্ষমতার অপব্যবহার করে করদাতাদের হেনস্থা করছেন। হয় সৎ করদাতাদের নিশানা করছেন, না হলে কারও সামান্য ভুলের জন্য কড়া ব্যবস্থা নিচ্ছেন। তাঁর বার্তা ছিল, এ সব বরদাস্ত করা হবে না। আয়কর অফিসারদের অতি সক্রিয় হতে বারণ করেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনও।