কাঁচামালে মেটানো কৃষি কল্যাণ সেস ও স্বচ্ছ ভারত সেস বাবদ বিপুল অঙ্কের কর ফেরতের দাবি জমা পড়েছিল সরকারের ঘরে। তাতে কারচুপি ঠেকাতে কেন্দ্রীয় জিএসটি আইন সংশোধন করে ওই দুই সেস বাবদ কর ফেরতের রাস্তা বন্ধ করল কেন্দ্র। সংশোধিত আইন পুরনো আবেদনের (রেট্রোস্পেক্টিভ) ক্ষেত্রেও কার্যকর হবে। কর বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, এর ফলে ভবিষ্যতে একাধিক মামলার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। বৃহস্পতিবার সম্মিলিত জিএসটি, কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল জিএসটি এবং রাজ্যের ক্ষতিপূরণ সংশোধনী বিলও পাশ হয়েছে লোকসভায়। 

২০১৭ সালের ১ জুলাই জিএসটি কার্যকর হয়েছিল। তার পর থেকে গত ১ ডিসেম্বর পর্যন্ত কাঁচামালে মেটানো সেস বাবদ কর ফেরতের আবেদনের সুযোগ দিয়েছিল কেন্দ্র। ওই সময়ের মধ্যে ১.৬০ লক্ষ কোটি টাকার কর ফেরতের দাবি জমা পড়ে। এমন বিপুল কর ফেরতের দাবি জমা পড়ায় ৫০,০০০ বড় করদাতার দাবির সত্যতা খতিয়ে দেখে কর দফতর। সূত্রের খবর, তদন্তে ভুয়ো দাবি সামনে এসেছে। তার পরেই এই সিদ্ধান্ত। 

এ দিন ভারপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পীযূষ গয়াল লোকসভায় জানিয়েছেন, জিএসটি আদায় এবং করদাতার সংখ্যা বাড়লে আরও বহু পণ্যে জিএসটি কমানো হতে পারে