×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২২ জুন ২০২১ ই-পেপার

করোনার প্রকোপে এপ্রিলে একটিও গাড়ি বিকোয়নি মারুতির

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ০১ মে ২০২০ ১৩:৪১
—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

অর্থনৈতিক সঙ্কটের জেরে টানা এক বছর খরা চলেছিল ব্যবসায়। সেই ধাক্কা পুরোপুরি কাটিয়ে ওঠার আগেই করোনার প্রকোপ। তাতে বিপুল ক্ষতির মুখে দেশের বৃহত্তম গাড়ি সংস্থা মারুতি। এপ্রিল মাসে একটিও গাড়ি বিক্রি হয়নি তাদের। সংস্থার তরফে এপ্রিলের যে রিপোর্ট প্রকাশ করে হয়েছে, তাতেই এমন ছবি ধরা পড়েছে। দেশীয় বাজারে এই প্রথম এমন অবস্থার মধ্যে পড়তে হল মারুতিকে।

তবে শুধুমাত্র মারুতি নয়, ২৪ মার্চ থেকে দেশজুড়ে লকডাউন জারি থাকায় অন্য সংস্থাগুলির ব্যবসাপাতিও বন্ধ ছিল। তাদের রিপোর্ট সামনে এলেও একই ছবি ধরা পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।

করোনার প্রকোপ রুখতে গত ২২ মার্চ জনতা কার্ফুর দিন থেকেই মারুতির বিক্রিবাটা বন্ধ। তার আগে পর্যন্ত ৮৩ হাজার ৭৯২টি ইউনিট বিক্রি করতে পেরেছিল তারা। অথচ গত বছর মার্চ মাসে ১ লক্ষ ৫৮ হাজার ৭৬টি ইউনিট বিক্রি হয়েছিল তাদের। অর্থাৎ এ বছর মার্চে মারুতির বিক্রি প্রায় ৪৭ শতাংশ কমে আসে। লকডাউনের জেরেই এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

Advertisement

আরও পড়ুন: কেন্দ্রের সংশোধিত তালিকায় রাজ্যের আরও ছয় জেলা রেড জোনে​

আরও পড়ুন: ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যায় নতুন রেকর্ড দেশে​

তবে জেলা প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে গত ২০ এপ্রিল থেকে হরিয়ানার মানেসরে কাজকর্ম আংশিক ভাবে শুরু করেছে মারুতি। এই মুহূর্তে সেখানে একটি মাত্র শিফ্‌টে কাজ করছেন কর্মীরা। ৫০টি গাড়ি এবং ৪ হাজার ৬৯৬ কর্মীকে নিয়ে এই মুহূর্তে কাজকর্ম চলছে সেখানে। গুজরাতেও আংশিক ভাবে কাজকর্ম শুরু হয়েছে মারুতির। মুন্দ্রা বন্দর থেকে সম্প্রতি ৬৩২টি গাড়ি বিদেশে রফতানি করে তারা।

Advertisement