• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

রাজ্যকে স্বস্তি শীর্ষ ব্যাঙ্কের

rbi
ফাইল চিত্র।

করোনাভাইরাসের মোকাবিলায় রাজ্য সরকারগুলিকে স্বাস্থ্য খাতে বেশি খরচ করতে হচ্ছে। লকডাউনের জেরে মানুষকে সুরাহা দিতেও ঢালতে হচ্ছে টাকা। এই অবস্থায় রাজ্যগুলির যাতে নগদের অভাব না-হয়, তার জন্য বুধবার রিজার্ভ ব্যাঙ্ক তাদের ৩০% বাড়তি স্বল্পমেয়াদি ঋণ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল।

রাজ্যগুলির নগদের অভাব পড়লে ‘ওয়েজ অ্যান্ড মিনস অ্যাডভান্স’ হিসেবে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের থেকে সর্বাধিক ৯০ দিনের জন্য ঋণ নিতে পারে। প্রতিটি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত আঞ্চলের ঋণের ঊর্ধ্বসীমা ঠিক করা থাকে। এ দিন রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই ঊর্ধ্বসীমা ৩০% বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। মঙ্গলবার কেন্দ্রের জন্যও এই স্বল্পমেয়াদি ঋণের ঊর্ধ্বসীমা ৭৫ হাজার কোটি টাকা থেকে বাড়িয়ে ১.২ লক্ষ কোটি টাকা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল শীর্ষ ব্যাঙ্ক।

রফতানিকারীদের সুরাহা দিতেও রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানিয়েছে, ৩১ জুলাই পর্যন্ত রফতানি বাবদ আয় হিসেবে বিদেশি মুদ্রা দেশে ফিরিয়ে আনতে ১৫ মাস পর্যন্ত সময় মিলবে। এত দিন ন’মাস পর্যন্ত সময় মিলত। করোনা আক্রান্ত দেশগুলিতে সমস্যার ফলে বাড়তি সময় দেওয়া হল। রফতানিকারীদের সংগঠন ফিয়োর মতে, করোনার জেরে বিশ্ব বাজারে চাহিদা কমেছে এবং রফতানি করা পণ্যের দাম পেতে দেরি হচ্ছে। শীর্ষ ব্যাঙ্কের সিদ্ধান্তে রফতানিকারীরা লাভবান হবেন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন