নেট পরিষেবার হাত ধরে ‘ডেটা’র ব্যবহার যত লাফিয়ে বাড়ছে, তত দানা বাঁধছে তথ্যের সুরক্ষা নিয়ে বিতর্ক। ডেটা-কে তেলের সঙ্গে তুলনা করে রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজের কর্ণধার মুকেশ অম্বানীর দাবি ছিল, বিদেশি সংস্থা নয়, সুরক্ষার খাতিরে এ দেশের তথ্য ভারতীয়দের হাতেই থাকুক। মুকেশের নাম না করেও বৃহস্পতিবার সেই উপমাকে নস্যাৎ করলেন ফেসবুকের ভাইস প্রেসিডেন্ট (আন্তর্জাতিক বিষয় ও যোগাযোগ) কর্তা নিক ক্লেগ। তাঁর পাল্টা দাবি, তথ্যের কোনও সীমা নেই। উদ্ভাবনের পাশাপাশি অপরাধ ও সন্ত্রাসবাদ ঠেকাতে সীমান্ত পেরিয়ে তার আদানপ্রদান জরুরি। ক্লেগের দাবি, কোনও সীমায় আটকে রাখলে ডেটার গুরুত্ব খর্ব হয়। যদিও তাঁর মতে, জাতীয় সুরক্ষার বিষয়টি ভারত সরকারের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। 

মুকেশ দাবি করেছিলেন, এ দেশে ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহারের ক্ষেত্রে তথ্যের ভাণ্ডার থাকুক ভারতেই। রিজার্ভ ব্যাঙ্ক গত বছর প্রযুক্তি নির্ভর বিদেশি আর্থিক সংস্থাগুলিকে সেই নির্দেশও দেয়। সংস্থাগুলি স্থানীয় ভাবে তথ্য মজুতের সেই বিধি শিথিলের জন্য কেন্দ্রের কাছে দরবার করছে।