অর্থ মন্ত্রকের কর্তারা মজা করে বলেন, ভারতীয় ক্রিকেট দলের ক্যাপ্টেন ও কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর কী করা উচিত, তা নিয়ে দেশের সকলের নিজস্ব মতামত রয়েছে। দ্বিতীয় দফার মোদী সরকারের নতুন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের অবশ্য তাতে সমস্যা নেই। বরং অর্থনীতিবিদ, শিল্পমহল, বিভিন্ন মন্ত্রকের পাশাপাশি সাধারণ মানুষ— সকলের মতই খতিয়ে দেখতে রাজি তিনি। তাই বাজেটের আগে সবাই যাতে নিজের মতামত জানান, বৃহস্পতিবার টুইটে সেই আহ্বান জানিয়েছেন নির্মলা। নতুন ভাবনা পেতে অর্থমন্ত্রীর এই ‘ক্রাউড সোর্সিং’ দেখে খুশি অর্থনীতিবিদেরাও। 

আগামী ৫ জুলাই বাজেট। সেখানেই দ্বিতীয় মোদী সরকারের প্রথম পূর্ণাঙ্গ বাজেট পেশ করবেন দেশের প্রথম মহিলা পূর্ণ অর্থমন্ত্রী। এ বারের বাজেটে অর্থমন্ত্রীর কী করা উচিত, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই লেখালিখি শুরু করেছেন অর্থনীতিবিদ, গবেষকেরা। পিছিয়ে নেই সাধারণ মানুষও। তাঁরাও নিজেদের মতো করে নেট-দুনিয়ায় টুইটার, ফেসবুকে নিজেদের মত জানাচ্ছেন। আজ অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, তাঁর ‘টিম’ সমস্ত মতামত জড়ো করে তাঁকে দেখাচ্ছেন। তিনি তার মধ্যে অনেকগুলিই পড়ছেন। বিভিন্ন মহল থেকে এই ধরনের ভাবনা এবং মতামত যাতে আসতে থাকে, তার জন্য সকলকে আহ্বান জানিয়েছেন নির্মলা।

এমনিতে বাজেটের আগে অর্থমন্ত্রী নিয়ম করে বিভিন্ন মন্ত্রকের সঙ্গে বৈঠক করেন। আলোচনায় ডাকা হয় শিল্পমহল, অর্থনীতিবিদদেরও। কিন্তু সেখানে হাতে গোনা কয়েকজন অর্থনীতিবিদই উপস্থিত থাকেন। অনেক সময়েই অভিযোগ ওঠে যে, সকলে সব কথা বলার সুযোগ পান না। সেদিক থেকেই নির্মলার এই ‘ক্রাউড সোর্সিং’-এর ভাবনাকে স্বাগত জানিয়েছেন অর্থনীতিবিদেরাও। প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য রথীন রায় যেমন টুইট করে বলেছেন, অর্থমন্ত্রীর এই বার্তা চাঙ্গা করার মতো। সকলের সঙ্গে সরকারের যোগাযাগ রাখা জরুরি।