যুদ্ধ বাধেনি। শুধু তার হুমকি দিয়ে একে অপরের দিকে চোখ রাঙিয়েছে ইরান ও আমেরিকা। আর তাতেই বিশ্ব বাজারে আগুন সোনার দর। লগ্নির নিরাপদ গন্তব্য হিসেবে কদর বাড়ায় ছ’বছরে সর্বোচ্চ। যার দৌলতে রেকর্ড দেশের বাজারেও। মঙ্গলবার কলকাতায় ৩৫ হাজার টাকা ছাড়িয়ে গেল ১০ গ্রাম পাকা (২৪ ক্যারাট) সোনার দাম। এই প্রথম।

ওয়েস্ট বেঙ্গল বুলিয়ন মার্চেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের তথ্য অনুযায়ী, ১ জুন রাজ্যে প্রতি ১০ গ্রাম পাকা সোনা ছিল ৩২,৬৮৫ টাকা। সেখান থেকে দাম যেখানে দাঁড়িয়েছে, তাতে তিন সপ্তাহেই তা বেড়েছে ২,৩৯৫ টাকা।

বিশ্ব জুড়ে শেয়ার বাজারে মৃদু কাঁপুনি ধরিয়েছে আমেরিকার সঙ্গে ইরানের ‘যুদ্ধং দেহি’ সম্পর্ক। সম্প্রতি ইরান মার্কিন নজরদারি ড্রোন গুলি করে নামানোর পরে তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার সিদ্ধান্ত কার্যত নিয়েই ফেলেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। শেষ মূহুর্তে সিদ্ধান্ত বদলান তিনি। কিন্তু এখনও দু’দেশের মধ্যে যে রকম উত্তেজনার পরিস্থিতি, তাতে খুব নিশ্চিন্ত নন লগ্নিকারীরা।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সাধারণত যুদ্ধ বাধলে বা সে রকম অস্থির পরিস্থিতি তৈরি হলে, বাজার টালমাটাল হয়। তখন প্রায়শই আগে থেকে লগ্নির নিরাপদ গন্তব্য হিসেবে কদর বাড়তে থাকে সোনার। এ বারও খানিকটা তেমনই ঘটছে বলে তাঁদের ধারণা। আর বিশ্ব বাজারে পাকা সোনার দাম যেহেতু বাড়ছে আর সেই সঙ্গে ডলারের দর এখনও যথেষ্ট চড়া, তাই ভারতেও ওই ধাতুর রেকর্ড দৌড় দেখা যাচ্ছে বলে তাঁদের অভিমত।

এই উত্থানে ইন্ধন জুগিয়েছে মার্কিন-চিন বাণিজ্য যুদ্ধ। এ দেশে শেয়ার বাজারে লগ্নিকারীদের খুব একটা স্বস্তিতে থাকতে দিচ্ছে না বৃষ্টি ভাল না হওয়া নিয়ে দুশ্চিন্তা, অনেক সংস্থার খারাপ আর্থিক ফল ইত্যাদি। বিনিয়োগকারীদের কপালে চিন্তার ভাঁজ থাকছে বিশ্ব অর্থনীতি কিছুটা ঝিমিয়ে পড়ার কারণেও।

ওয়েস্ট বেঙ্গল বুলিয়ন মার্চেন্টস অ্যান্ড জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশনের সেক্রেটারি দীনেশ কুমার খাবরা বলেন, ‘‘এমনিতেই বিশ্বে আর্থিক অগ্রগতি শ্লথ হয়েছে। তার উপরে মার্কিন শীর্ষ ব্যাঙ্ক ফেডারেল রিজার্ভ সুদের হার কমাবে বলে যে ইঙ্গিত দিয়েছে, তারও প্রভাব পড়েছে সোনার দামে।’’ তাঁর মতে, এর কারণ সুদ কমলে বন্ড ও স্থায়ী আমানতে লগ্নির প্রবণতা কমা। তার পরিবর্তে লগ্নিকারীরা যে সব জায়গায় টাকা ঢালেন, তার অন্যতম হল সোনা। তাই তাতে লগ্নি বেড়েছে। চড়েছে দামও। আবার অল ইন্ডিয়া জেম অ্যান্ড জুয়েলারি ডোমেস্টিক কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান শঙ্কর সেন বলেন, ‘‘ফাটকাবাজরা দাম বাড়াতে আগাম লেনদেনে বেশি করে লগ্নি শুরু করায় কৃত্রিম ভাবে চাহিদা বেড়েছে। ফলে বাড়ছে সোনার দাম।’’

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের YouTube Channel - এ।