• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সোনার দামে রেকর্ড, ৫০ হাজার পার রুপোও

Gold
প্রতীকী ছবি।

গত সপ্তাহেই সোনার দাম ৫০ হাজার টাকা ছুঁয়েছিল। মাথায় হাত পড়েছিল বহু মানুষের। যাঁরা, করোনার আবহে ছেলে-মেয়ের বিয়েতে পাত পেড়ে খাওয়ানোর কথা না-ভাবলেও, মেয়ে বা বাড়ির নতুন বৌকে গয়নায় সাজিয়ে দেওয়ার ব্যাপারে বিন্দুমাত্র খামতি রাখতে চান না। সেই সঙ্গে তাঁদেরও, যাঁরা শেয়ার, ফান্ডে লগ্নির অনিশ্চয়তা এড়াতে সঞ্চয় চান সোনায়। বুধবার তাঁদের রক্তচাপ আরও বাড়িয়ে কলকাতায় প্রতি ১০ গ্রাম ২৪ ক্যারেট সোনা জিএসটি-সহ ছুঁয়েছে ৫১,৩৪১ টাকার রেকর্ড উচ্চতা। ২২ ক্যারেট গয়নার সোনা ছাড়িয়েছে ৪৮,৫৩৩ টাকা।

তাল মিলিয়ে দৌড়োচ্ছে রুপোও। এ দিন প্রতি কিলোগ্রাম রুপোর বারের দাম দাঁড়িয়েছে ৫১,৯৫১ টাকা। সাম্প্রতিক কালে এতটা চড়তে দেখা যায়নি একে। 

সংশ্লিষ্ট মহলের দাবি, এর জেরে ভুগবে বহু শিল্প। বৈদ্যুতিন যন্ত্রপাতি, গাড়ির দূষণ নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা তৈরি-সহ যে সব ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয় এই ধাতু। দামি সোনার গয়না থেকে মুখ ফিরিয়ে যাঁরা রুপোর দিকে ঝুঁকেছেন, আতান্তরে তাঁরাও।

আরও পড়ুন: ভোডাফোনের ক্ষতি জল্পনা উস্কে দিল পরিষেবা নিয়েই

বিশেষজ্ঞেরা বলছেন, সঞ্চয়ে সুরক্ষার খুঁজছেন মানুষ। তাই সোনা, রুপোয় লগ্নি বাড়ছে। ফলে চড়ছে দাম। তবে একাংশের মতে, সোনায় লগ্নি আর মধ্যবিত্তের নাগালে নেই। বরং তা হয়ে উঠেছে মূলত বিত্তবানের সম্পত্তি। যাঁরা টুকটাক সোনাদানা কিনে রাখায় বিশ্বাসী, ইতিমধ্যেই চূড়ান্ত হতাশ তাঁরা। অবস্থা সামাল দিতে গয়না কেনার বাজেট ছাঁটছেন অনেকে। কেউ কেউ বিয়ের দিন পিছোচ্ছেন। আশা, যদি নামে দাম। তবে সেই আশা কতটা মিটবে, বলবে সময়।

আরও পড়ুন: হারাতে পারে ৩৪ কোটি কাজ

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন