ব্যাঙ্ক জালিয়াতির জন্য নিত্য-নতুন কৌশল বের করেই চলেছে জালিয়াতরা। এই কাজের জন্য সম্প্রতি তারা বেছে নিয়েছে জনপ্রিয় গুগল ম্যাপ সার্ভিস। যদিও এর জন্য গুগলের কোনও সার্ভার হ্যাক করার প্রয়োজন হয়নি তাদের। শুধু মাত্র ব্যবহারকারীদের ভুলই জালিয়াতদের হাতে তুলে দিচ্ছে এই নয়া হাতিয়ার।

সম্প্রতি মহারাষ্ট্র পুলিশের তরফে ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া এবং কর্মচারীদের প্রভিডেন্ট ফান্ডে এমনই একটা জালিয়াতির চক্রান্তের সন্ধান পেয়ে জনগণকে সতর্ক করা হয়। সম্প্রতি গুগল সার্চে মুম্বইয়ের প্রভিডেন্ট ফান্ড অফিসের যোগাযোগের জন্য দেওয়া মোবাইল নম্বরটি বদল করে দেয় জালিয়াতরা। তার পর সেই নম্বরে যোগাযোগ করা হলে ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য চাওয়া হয় বলে অভিযোগ। প্রভিডেন্ট ফান্ড ব্যবহারকারীদের কয়েকজনকে প্রতারিতও হতে হয়েছে বলে পুলিশের তরফে জানানো হয়।

গুগল ম্যাপে পরিষেবার মাধ্যমে আরও ভালভাবে সাহায্য করার জন্য গুগল ব্যবহারকারীদের দোকান, ব্যাঙ্ক এবং অন্যান্য সংস্থার যোগাযোগের বিবরণ সম্পাদনা করতে অনুমতি দেয়। সেই সুবিধা কাজে লাগিয়েই এর ফায়দা তুলছে জালিয়াতরা। এইভাবে বহু ক্ষেত্রেই সরকারী অফিসের বা কর্তাব্যক্তিদের ফোন বা মোবাইল নম্বর বদলে দিয়ে প্রতারণা করা চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে পুলিশের কপালে।

আরও পড়ুন : ‘কালো টাকা সাদা করতেই নোটবন্দি’

এই সমস্যার কথা স্বীকার করা হয়েছে গুগলের তরফেও। কিন্তু এখনও অবধি গুগলের ম্যাপের বিভিন্ন ক্ষেত্রে জাল বা ভুল তথ্যের কোনও সংশোধনী দেখা যায়নি।সুতরাং বারবার পুলিশের তরফে জনগনকে সাবধান করা হচ্ছে যে কোনও ভাবেই যেন তারা তাদের ব্যক্তিগত তথ্য যেমন ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্ট নাম্বার, পাসওয়ার্ড, সিভিভি ইত্যাদি কাউকে না জানান।

আরও পড়ুন : ৫ ডিসেম্বর থেকে আসতে চলেছে প্যান কার্ডের নতুন নিয়ম: জেনে নিন

অতএব জালিয়াতদের থেকে সাবধান থাকুন আপনিও। গুগল ম্যাপে দেওয়া যোগাযোগের জন্য কোনও তথ্য সম্পূর্ণ যাচাই না করে বিশ্বাস করবেন না কোনও ভাবেই!