Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Indian Railways: মাত্র ৩৫ পয়সা খরচে ১০ লাখ টাকার সুবিধা, রেলযাত্রীরা জানুন ঠিক কী করতে হবে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ১৬:৫২
রেলের এই নিয়ম সকলের জেনে রাখা দরকার।

রেলের এই নিয়ম সকলের জেনে রাখা দরকার।

মাত্র ৩৫ পয়সা। এটুকু খরচ করলেই ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত বিমার সুযোগ পাওয়া যায়। কিন্তু না জানার জন্য এই সুযোগ অনেকেই হাতছাড়া করে ফেলেন। আইআরসিটিসি-র পোর্টাল বা অ্যাপের মাধ্যমে ভারতীয় রেলের টিকিট সংরক্ষণের সময়ে ভাড়ার সঙ্গে মাত্র ৩৫ পয়সা অতিরিক্ত দিলেই এই সুবিধা পাওয়া যায়।

তাই আইআরিসিটিসি-র পোর্টাল বা অ্যাপ থেকে টিকিট কাটার সময়ে অবশ্যই খেয়াল রাখা দরকার এই অপশনের দিকে। যাত্রীরা না চাইলে রেল এই সুবিধা দেয় না। সে ক্ষেত্রে ৩৫ পয়সা কাটাও হয় না। কিন্তু এই অপশন ক্লিক করে দিলে ৩৫ পয়সার বিনিময়ে মোটা অঙ্কের সফর বিমা দেয় আইআরসিটিসি। একজন যাত্রীর জন্য ৩৫ পয়সা নয়, একটি টিকিটের জন্য দিতে হয় ওই খরচ। অর্থাৎ, একটি পিএনএর নম্বরের আওতায় ছ’জনের টিকিট থাকলে প্রত্যেকের জন্য দশ লাখ টাকা পর্যন্ত বিমা হয়ে যায়।

এই বিমায় আলাদা আলাদা ভাগে ক্ষতিপূরণ মেলে। ট্রেন সফরের সময়ে দুর্ঘটনায় কারও মৃত্যু হলে পরিবারকে দেওয়া হয় দশ লাখ টাকা। আবার কোনও যাত্রী চিরদিনের জন্য পঙ্গু হয়ে গেলে কর্মক্ষমতা হারানোর জন্য তাঁকে দশ লাখ টাকা দেওয়া হয়। আংশিক পঙ্গুত্বের জন্য মেলে সাড়ে সাত লাখ টাকা। দুর্ঘটনায় জখমদের চিকিৎসার জন্য দু’লাখ টাকা পর্যন্ত দেওয়া হয়। এ ছাড়াও দুর্ঘটনায় মৃত্যু হলে মৃতের দেহ পরিবহণের জন্য দশ হাজার টাকা পর্যন্ত দেওয়া হয়।

Advertisement

টিকিট কাটার সময়ে অনেকেই এই সুবিধা নেন। কিন্তু তার পরের গুরুত্বপূর্ণ কাজটি করেন না। মনে রাখতে হবে টিকিট কাটার সময়ে ‘ট্রাভেল ইন্সিওরেন্স’-এ ক্লিক করলে যিনি টিকিট কাটছেন তাঁর ফোনে একটি এসএমএস আসবে। বিমা সংস্থার পক্ষ থেকে রেজিস্টার্ড ই-মেল আইডিতে মেলও আসে। সেই মেল বা এসএমএস-এর সঙ্গে থাকে একটি লিঙ্ক। যেখানে গিয়ে বিমার জন্য প্রয়োজনীয় নমিনির নাম, পরিচয় দিয়ে দিতে হবে। টিকিট কাটার পরে বিমা সংস্থার ওয়েবসাইটে গিয়ে এই কাজটি না করলে ক্ষতিপূরণ পাওয়া অনিশ্চিত হয়ে যায়। তবে নমিনেশন ফর্ম পূরণ না করলেও আইনত উত্তরাধিকারীরা ক্ষতিপূরণের জন্য আবেদন করতে পারেন। সে ক্ষেত্রে বিমাকৃত অর্থ পাওয়া যায়।

এমন বিমার সুবিধা বিমানযাত্রীরাও পান কিন্তু এত কম প্রিমিায়ম নয়। রেলের এই বিমা সব শ্রেণির যাত্রীরাই করতে পারেন। সকলের জন্যই প্রিমিয়াম ৩৫ পয়সা। তবে মনে রাখতে হবে একবার বিমার সুযোগ নিয়ে টিকিট কাটা হয়ে গেলে প্রিমিয়ামের পয়সা ফেরৎ পাওয়া যায় না। টিকিট বাতিল করবে বা ওয়েটিং লিস্টের টিকিট কনফার্ম না হলেও প্রিমিয়ামের পয়াস ফেরৎ পাওয়ার উপায় নেই। আরও একটা বিষয় জানা দরকার যে, পাঁচ বছরের কম বয়সের শিশুদের এই বিমার সুবিধা দেয় না আইআরসিটিসি।

আরও পড়ুন

Advertisement