যে কাজ সব থেকে কঠিন বলে মনে হচ্ছে, বাজেটের প্রস্তুতি বৈঠকের প্রথম দিনে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের সামনে সেই দাবিই তুলল শিল্প। মঙ্গলবার প্রথমে নির্মলা কৃষক সংগঠন ও কৃষি ক্ষেত্রের সঙ্গে যুক্ত সংস্থার সঙ্গে বৈঠকে জানান, সমস্যা সমাধানে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। পরে বসেন শিল্পের সঙ্গে। তাঁর কাছে শিল্পকর্তাদের দাবি, কর্পোরেট কর ধাপে ধাপে ১৮% করা হোক। বদলে প্রয়োজনে সব ছাড় তুলুক কেন্দ্র। নির্মলা বলেন, দেশের প্রায় ২৪% কাজ তৈরি হয় শিল্পের হাত ধরে। তাই তার সুযোগ তৈরিতে এগিয়ে আসুক তারা।

অন্তর্বর্তী বাজেটে বেঁধে দেওয়া কর আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ নিয়ে চিন্তা আছে। এ দিকে শিল্প কর্পোরেট ও আয় কর কমাতে বলছে। সিআইআই চায়, পুঁজি জোগাড়ে শেয়ার ছাড়ার রাস্তা সহজ হোক। আর্জি, ডিভিডেন্ড বণ্টনে কর ২০% থেকে ১০% করা ও তা লগ্নিকারীদের থেকে না-কাটার। জিএসটি পরিষদের ধাঁচে শ্রম আইন সংস্কার, পরিবেশ ছাড়পত্রে কেন্দ্র-রাজ্য ঐকমত্য গড়তে পরিষদ তৈরির দাবি করেন বণিকসভাটির সভাপতি বিক্রম কির্লোস্কর। বৈঠকে ছিলেন ফিকি সভাপতি সন্দীপ সোমানি। ফিয়োর ডিজি-সিইও অজয় সহায়ের দাবি, ঋণে অগ্রাধিকারের তালিকায় রফতানিকে আনার। অ্যাসোচ্যামের সভাপতি বি কে গোয়েন্‌কা বলেন, লগ্নিতে লাল ফিতের ফাঁস কাটাক কেন্দ্র।