Advertisement
০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

ফের ১০% বৃদ্ধির  স্বপ্ন ফেরি প্রধানমন্ত্রীর

ব্যালটের যুদ্ধ দরজায় কড়া নাড়া শুরু করতেই ফের নিয়ম করে অর্থনীতির ‘অচ্ছে দিনের স্বপ্ন’ ফেরি করছেন নরেন্দ্র মোদী।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৩ জুন ২০১৮ ০২:৩৮
Share: Save:

ব্যালটের যুদ্ধ দরজায় কড়া নাড়া শুরু করতেই ফের নিয়ম করে অর্থনীতির ‘অচ্ছে দিনের স্বপ্ন’ ফেরি করছেন নরেন্দ্র মোদী।

Advertisement

দিন কয়েক আগেই ১০% বৃদ্ধির সম্ভাবনার কথা ফলাও করে প্রচার করেছিলেন। শুক্রবার ফের তুললেন সেই প্রসঙ্গ। বললেন, ৭-৮% বৃদ্ধিতে সন্তুষ্টির দিন শেষ। ১০ শতাংশের কক্ষপথে পৌঁছনোর মশলা দেশের অর্থনীতির অন্দরে মজুত। সময় এসেছে তাকে বাস্তবায়িত করার।

এ দিন বাণিজ্য মন্ত্রকের নতুন অফিসের শিলান্যাস অনুষ্ঠানে ভারতকে ৫ লক্ষ কোটি ডলারের অর্থনীতি হিসেবে গড়ারও ডাক দিয়েছেন তিনি। দাবি করেছেন, তার জন্য বিশ্ব বাণিজ্যে অংশীদারি অন্তত দ্বিগুণ (৩.৪%) হওয়া জরুরি।

কিন্তু বিরোধীরা বলছেন, সবে একটি মাত্র ত্রৈমাসিকে সাড়ে সাত শতাংশের গণ্ডি টপকেছে বৃদ্ধির হার। তার আগে নোটবন্দি আর তড়িঘড়ি জিএসটি চালুর কারণে তো তা হামাগুড়ি দিচ্ছিল ৬-৬.৫ শতাংশে!

Advertisement

অনেকে আবার বলছেন, ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটের আগেও এ ভাবে ১০% বৃদ্ধির স্বপ্ন ফেরি করতেন মোদী। দাবি করতেন, ভারতের মতো সম্ভাবনাময় অর্থনীতিতে তা সময়ের অপেক্ষা। তা নাকি হচ্ছে না ইউপিএ সরকারের নীতিপঙ্গুত্বের জেরে।

তাঁদের মতে, মোদী জানেন লোকসভা নির্বাচনে সেই অর্থনীতির কষ্টিপাথরেই তাঁকে মাপবেন ভোটাররা। বিরোধীরা আক্রমণ শানাবেন নোটবন্দি, জিএসটি চালুর দরুন তার চাকা মাটিতে বসে যাওয়া নিয়ে। তাই অর্থনীতি নিয়েই আগে থেকে আক্রমণাত্মক হচ্ছেন মোদী। এ নিয়ে সরব হয়েছেন অর্থ মন্ত্রকের দায়িত্ব থেকে দূরে থাকা অরুণ জেটলি। এই অর্থবর্ষেই বৃদ্ধি ১০% হতে পারে বলে দাবি এখন ওই মন্ত্রক সামলানো পীযূষ গয়ালেরও। বিরোধীরা অবশ্য বলছে, আগে বৃদ্ধি ৮% হোক। আগের অর্থবর্ষেও তো সেই হার ৬.৭%।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.