পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক (পিএনবি), ইউনাইটেড ব্যাঙ্ক (ইউবিআই) এবং ওরিয়েন্টাল ব্যাঙ্ক অব কমার্স (ওবিসি) মিশে গেলে কী নাম ও লোগো হতে পারে, তা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে সম্প্রতি। এ বার ইউবিআইয়ের এক আধিকারিকের ইঙ্গিত, নাম ও লোগো নিয়ে চিন্তা-ভাবনা শুরু করেছেন তাঁরাও। সংযুক্তিকরণের পরে নতুন নাম পেতে পারে ব্যাঙ্কটি। আর নতুন লোগো তৈরির দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে বাইরের কোনও বিশেষজ্ঞকে।  তবে গোটা বিষয়টিই এখনও পর্যন্ত প্রথম ধাপে, দাবি সূত্রের।

অর্থনীতিকে শক্তিশালী করতে একাধিক ছোট রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ককে মেশানো বা ছোট ব্যাঙ্কগুলিকে বড় ব্যাঙ্কের সঙ্গে মেশানোর পক্ষে অনেক দিন ধরেই সওয়াল করছে কেন্দ্র। গত ৩০ অগস্ট ১০টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ককে মিশিয়ে চারটি বড় ব্যাঙ্ক তৈরির কথা ঘোষণা করেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। কেন্দ্রের ওই সিদ্ধান্তেই মিশে যাচ্ছে পিএনবি, ইউবিআই এবং ওবিসি। এর ফলে নতুন যে ব্যাঙ্কটি গড়ে উঠবে তার নাম কী হবে, লোগো কেমন হবে, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই জল্পনা শুরু হয়েছে ব্যাঙ্কিং মহলে। এই প্রেক্ষিতেই ওই মন্তব্য ইউবিআই আধিকারিকের। 

তাঁর কথায়, ‘‘নতুন ব্যাঙ্ক হিসেবে বাজারে নিজস্ব পরিচিতি গড়ে তুলতে লোগো খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কোনও বিশেষজ্ঞকে এই দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে। সব পক্ষের মতামত ও পরামর্শের পরেই তা চূড়ান্ত হবে।’’ তিনি জানান, সামনের সপ্তাহে তিন ব্যাঙ্কের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং এগ্‌জ়িকিউটিভ ডিরেক্টরেরা বৈঠকে বসতে চলেছেন। যেখানে নাম ও লোগোর বিষয়টি প্রাধান্য পাবে। উল্লেখ্য, সংযুক্তিকরণ কার্যকর হতে পারে ১ এপ্রিল থেকে। ব্যবসার পরিমাণের হিসেবে (১৮ লক্ষ কোটি টাকা) এই ব্যাঙ্কটি হতে চলেছে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম। এক নম্বরে স্টেট ব্যাঙ্ক। 

সূত্রের বক্তব্য, ব্যাঙ্ক তিনটির পরিচালন ব্যবস্থা আলাদা। এগুলিকে কী ভাবে এক ছাদের নীচে আনা যায় তা ঠিক করতে আধিকারিকদের নিয়ে ৩৪টি কমিটি তৈরি হয়েছে। যারা নানা ক্ষেত্রের কর্ম পদ্ধতি চূড়ান্ত করবে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে যেটির ব্যবস্থা সবচেয়ে ভাল সেটিই গ্রহণ করা হবে।