অ্যামাজন, ফ্লিপকার্টের মতো ই-কমার্স সাইটে এত দিন তাদের স্মার্টফোন বিক্রি হত। এ বার স্মার্টফোন প্রস্তুতকারী চিনা সংস্থা ওপো-র তরফে জানানো হয়েছে যে, চলতি বছরেই তারা নিজস্ব একটি ই-কমার্স সাইট খুলবে। অন্য কোনও স্মার্টফোন নির্মাণকারী সংস্থা এমন ব্যবসার কথা ভাবেনি। এমনকি অ্যাপেলের মতো নামী সংস্থাও নয়।

ওপোর বক্তব্য, অন্য ই-কমার্স সাইটগুলো থেকেই তারা অনুপ্রাণিত হয়ে নতুন প্রকল্পের কথা ভেবেছে। বিক্রির হার বাড়াতে এ বার থেকে তারা অনলাইন শপিং সাইট এবং নিজস্ব ই-কমার্স সাইটে বছরে দু’-তিনটি করে স্মার্টফোন লঞ্চ করবে বলে জানিয়েছে। যে হেতু ‘কে-৩’-এর বাজার ভাল, তাই ওপো জানিয়েছে কে-সিরিজের অন্তর্গত বিভিন্ন মডেলের স্মার্টফোন ওই ই-কমার্স সাইটে তারা লঞ্চ করবে।

ওপো চলতি মাসেই ‘কে-৩’ লঞ্চ করেছে অনলাইনে। মধ্যবিত্তের বাজেটের মধ্যে এই ফোন বাজারে ভালই সাফল্য পায়। এ ছাড়া আরও কয়েকটি মডেল যেমন এ-৯, এফ ১১ প্রো এই বছর ওপো লঞ্চ করে।

আরও পড়ুন: এয়ারটেলকে সরিয়ে দুনম্বর টেলিকম সংস্থা হল জিয়ো

সামনেই দুর্গাপুজো এবং দীপাবলি। আর পুজো মানে এখন শুধু জামা-কাপড় শপিং করা নয়। সঙ্গে ইলেক্ট্রনিক্স আইটেম থেকে শুরু করে স্মার্টফোনও রয়েছে। তাই দীপাবলির আগে ওই ওপো তাদের নিজস্ব ই-কমার্স সাইটে বিভিন্ন স্মার্টফোনগুলির উপর বিশেষ ছাড় দেবে বলে জানা গিয়েছে।

ওপোর সিইও চার্লস ওয়ং বলেন, ‘‘দীপাবলির আগেই আমাদের নিজস্ব অনলাইন ওপো ই-কমার্স সাইট লঞ্চ করতে পারব বলে আশা করি। এই সাইটের কাজ অনেকটাই এগিয়ে গিয়েছে। ওপোর নতুন ওয়েব সাইট লঞ্চ হলে সেখানে বছরে দু’তিনটি স্মার্টফোন লঞ্চ করা হবে।’’

ভারতের বাজারে অনলাইন স্মার্টফোন বিক্রির দিক থেকে শাওমি প্রথমে রয়েছে। তার পরে রয়েছে স্যামসাং, রিয়েলমি এবং আসুস। ওপো জানিয়েছে, অফলাইনেও তাদের অনেক ফোন বিক্রি হয়েছে। তবে অনলাইনে যে ভাবে স্মার্টফোন বিক্রির পরিমাণ বেড়েছে, তাতে নতুন একটি ই-কমার্স সাইট লঞ্চ করলে তা ভালই লাভজনক হবে। আর সে কারণেই তাদের ওই সিদ্ধান্ত।

আরও পড়ুন: ৪৮ নয়, ৬৪ মেগাপিক্সেল ক্যামেরাওয়ালা স্মার্টফোন লঞ্চ করতে চলেছে শাওমি