গত মার্চের মাঝামাঝি দিল্লিতে বৈঠকের পরে বিভিন্ন রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের কর্তারা জানিয়েছিলেন, ৪৫ দিনের মধ্যে কোর ব্যাঙ্কিং সলিউশনের সঙ্গে সুইফট ব্যবস্থাকে যুক্ত করবেন সকলে। কিন্তু রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নির্দেশ মেনে সেই কথা রাখেননি অনেকেই। এমনকি খোদ পঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কও (পিএনবি) ভেঙেছে এ সংক্রান্ত বিধি। যে ব্যাঙ্কে এই দু’টি ব্যবস্থা যুক্ত না থাকার কারণেই নীরব মোদী ও তাঁর মামা মেহুল চোক্সীর পক্ষে ১৪,০০০ কোটি টাকা জালিয়াতি করা সহজ হয়েছিল বলে অভিযোগ। পিএনবির উপর তাই বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে ২ কোটি টাকার জরিমানা চাপিয়েছে শীর্ষ ব্যাঙ্ক।

এর আগে সুইফট ব্যবস্থাকে পোক্ত করার লক্ষ্যে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তাদের নির্দেশ না মানার অভিযোগে ৩৬টি রাষ্ট্রায়ত্ত, বেসরকারি ও বিদেশি ব্যাঙ্ককে ৭১ কোটি টাকা জরিমানা করেছে আরবিআই।

উল্লেখ্য, কোর ব্যাঙ্কিং সলিউশনে ব্যাঙ্কের লেনদেন চলে। আর সুইফট হল বার্তা পাঠাবার এমন একটি আন্তর্জাতিক ব্যবস্থা, যা ব্যবহার করে বিভিন্ন আর্থিক লেনদেনের খবর যায় এক ব্যাঙ্ক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে আর একটিতে। নীরব কাণ্ড থেকে শিক্ষা নিয়েই সমস্ত ব্যাঙ্ককে কোর ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থার সঙ্গে সুইফটকে যুক্ত করার নির্দেশ দিয়েছিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। যাতে আটকানো যায় আর্থিক প্রতারণার ঘটনা।