Advertisement
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Crude Oil Price

তেল ৭৫ ডলারের নীচে, অপেক্ষা দেশে দর কমার

প্রয়োজনের ৮৫% তেলই বিদেশ থেকে আমদানি করে ভারত। গত বছর থেকে বিশ্ব জুড়ে টালমাটাল অবস্থার মধ্যে কখনও অশোধিত তেলের দর ছুঁয়েছে ব্যারেলে ১৩৯ ডলার।

An image of Crude Oil

—প্রতীকী চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩ ০৮:৪৬
Share: Save:

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে নানা ভূ-রাজনৈতিক অস্থিরতা চললেও, কিছুটা স্বস্তি দিয়ে বিশ্ব বাজারে অশোধিত তেলের দর ব্যারেলে নেমেছিল ৮০ ডলারের নীচে। শিল্প মহলের তরফে বার্তা ছিল, স্থায়ী ভাবে দাম ওই সীমার নীচে থাকলে পেট্রল-ডিজ়েলের দাম কমবে দেশেও। এখনও পর্যন্ত সেই পথে তেল সংস্থাগুলি হাঁটেনি। তার মধ্যেই এ বার আন্তর্জাতিক বাজারে আরও মাথা নামাল অশোধিত তেল। ব্যারেলে ব্রেন্ট ক্রুড নামল ৭৫ ডলারেরও নীচে। নামছে অপর অশোধিত তেল ডব্লিউটিআই-ও। এখন অপেক্ষা দেশে এর প্রভাব পড়ে কি না।

প্রয়োজনের ৮৫% তেলই বিদেশ থেকে আমদানি করে ভারত। গত বছর থেকে বিশ্ব জুড়ে টালমাটাল অবস্থার মধ্যে কখনও অশোধিত তেলের দর ছুঁয়েছে ব্যারেলে ১৩৯ ডলার। তো কখনও নেমে এসেছে ৭০-৭৫ ডলারে। দেশে অবশ্য গত বছর মে মাস থেকে স্থির রয়েছে পেট্রল-ডিজ়েল। কলকাতায় ইন্ডিয়ান অয়েলের পাম্পে দাম যথাক্রমে লিটারে ১০৬.০৩ টাকা এবং ৯২.৭৬ টাকা।

সম্প্রতি তেল রফতানিকারী দেশগুলির সংগঠন ওপেক ও রাশিয়ার মতো সহযোগীরা ফের পণ্যটির উৎপাদন কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আশঙ্কা চড়ছিল ইজ়রায়েল-হামাসের যুদ্ধ নিয়েও। তবে সব মহলকেই স্বস্তি দিয়ে মাত্রা ছাড়ায়নি তেলের দর। এ দিন ব্রেন্ট ক্রুড এক সময়ে ৪ শতাংশের বেশি পড়ে নেমেছিল ৭৪.৩০ ডলারে। ডব্লিউটিআই ৭০ ডলারের নীচে।

সংশ্লিষ্ট মহলের মতে, ওপেকের উৎপাদন ছাঁটাইয়ের সঙ্গে পাল্লা দিতে আমেরিকার মতো দেশের উত্তোলন বাড়ানো এর অন্যতম কারণ। সেই ধারা বজায় থাকে কি না দেখা জরুরি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE