Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

২৯ ফেব্রুয়ারির বকেয়ার ভিত্তিতেই সুদের হিসেব 

যাঁরা ২ কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণের ক্ষেত্রে মোরাটোরিয়ামের সুবিধা নেননি, একই সুবিধা পাবেন তাঁরাও।

সংবাদ সংস্থা 
নয়াদিল্লি ২৯ অক্টোবর ২০২০ ০৪:৫২
Save
Something isn't right! Please refresh.
ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

Popup Close

৫ নভেম্বরের মধ্যেই যে ২ কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণে মার্চ থেকে অগস্টের কিস্তিতে সুদের উপর সুদের টাকা ফেরাতে বাধ্য ঋণদাতারা, তা স্পষ্ট করেছে কেন্দ্র ও রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। তবুও সুদের হিসেব কষা নিয়ে মাথা তুলেছিল প্রশ্ন। ব্যাঙ্কিং মহলের দাবি, ইতিমধ্যেই প্রশ্নোত্তরের আঙ্গিকে সেই ব্যাখ্যা প্রকাশ করেছে কেন্দ্রীয় অর্থ মন্ত্রক। যেখানে পরিষ্কার বলা আছে, ঋণগ্রহীতার অ্যাকাউন্টে ২৯ ফেব্রুয়ারি শোধ না-হওয়া ধারের ভিত্তিতেই ১ মার্চ থেকে ৩১ অগস্ট পর্যন্ত, ১৮৪ দিনের সুদ হিসেব হবে।

তার পরে সুদের উপর সুদ (কম্পাউন্ড ইন্টারেস্ট) থেকে সাধারণ সুদ (সিম্পল ইন্টারেস্ট) বাদ দিয়ে যা দাঁড়াবে, সেই টাকা ঋণদাতা ব্যাঙ্ক অথবা এনবিএফসিগুলি সংশ্লিষ্ট ঋণগ্রহীতার ঋণ অ্যাকাউন্টে এক্সগ্রাশিয়া হিসাবে জমা দেবে। তবে কোনও ক্ষেত্রেই ২৯ ফেব্রুয়ারির পরে বদল হওয়া সুদ বিবেচ্য হবে না।

কেন্দ্রের ব্যাখ্যা অনুযায়ী, ছ’মাস স্থগিত থাকা কিস্তিতে (মোরাটোরিয়াম) এই সুবিধা তো মিলবেই। যাঁরা ২ কোটি টাকা পর্যন্ত ঋণের ক্ষেত্রে মোরাটোরিয়ামের সুবিধা নেননি, একই সুবিধা পাবেন তাঁরাও। অর্থাৎ তাঁদের ঋণ অ্যাকাউন্টেও ওই ১৮৪ দিনের সুদের উপর সুদ মকুবের টাকা এক্সগ্রাশিয়া হিসাবে জমা পড়বে। বিশেষজ্ঞদের ব্যাখ্যা, ঋণগ্রহীতাদের মধ্যে ফারাক না-করার নীতি থেকেই এই সিদ্ধান্ত। সুবিধাটি দেওয়া হবে ওই সব ঋণগ্রহীতা মোরাটোরিয়ামের সুবিধা নিয়েছেন, ধরে নিয়েই।

Advertisement



Something isn't right! Please refresh.

আরও পড়ুন

Advertisement