প্রত্যাশা মতোই ফের রেপো রেট কমাল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। আর্থিক বছরের শুরুতেই ২৫ বেসিস পয়েন্ট, অর্থাৎ .২৫ শতাংশ কমিয়ে রেপো রেট করা হল ৬ শতাংশ। গত তিন দিন ধরে শীর্ষ ব্যাঙ্কের অর্থনৈতিক নীতি নির্ধারণ কমিটির বৈঠকের পর আজ শুক্রবার এই সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেন আরবিআই গভর্নর শক্তিকান্ত দাস। পর পর দু’টি দ্বিমাসিক বৈঠকে রেপো রেট কমানোর সিদ্ধান্ত নজিরবিহীন। এর ফলে এক দিকে গাড়ি বাড়ির ঋণে সুদ কমাতে পারে ব্যাঙ্কগুলি। তবে অপরিবর্তিত রয়েছে রিভার্স রেপো রেট।

বাণিজ্যিক ব্যাঙ্কগুলিকে যে সুদের হারে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক স্বল্পমেয়াদি ঋণ দেয়, ব্যাঙ্কিং পরিভাষায় সেটাই রেপো রেট। উল্টো দিকে যে হারে আরবিআই বাণিজ্যিক ব্যাঙ্কগুলির কাছ থেকে ঋণ নেয়, সেটাই রিভার্স রেপো রেট। রেপো রেট কমালে তার সুবিধা পায় বাণিজ্যিক ব্যাঙ্কগুলি। আর ব্যাঙ্কগুলিও সেই সুবিধা গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা করে। সেই সূত্রেই রেপো রেট কমালে গাড়ি বাড়ি-সহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে গ্রাহকরা যে ঋণ নিয়ে থাকেন ব্যাঙ্ক থেকে, তার সুদ কমার সম্ভাবনা থাকে।

২০১৯-২০ অর্থবর্ষে এটাই প্রথম আর্থিক নীতি ঘোষণা করল দেশের শীর্ষ ব্যাঙ্ক। এর আগে ফেব্রুয়ারি মাসের আর্থিক নীতি পর্যালোচনা বৈঠকের পরও ২৫ বেসিস পয়েন্ট রেপো রেট কমিয়েছিল আরবিআই। রেপো রেটের পাশাপাশি আরবিআই-এর নজরে ছিল চলতি আর্থিক বছরে বৃদ্ধির হারও। বৈঠক শেষে আরবিআই-এর গভর্নর বলেন, আর্থিক চলতি বছরে আর্থিক বৃদ্ধি হতে পারে ৭.২ শতাংশ হারে। এর মধ্যে প্রথমার্ধে হতে পারে ৬.৮ থেকে ৭.১ শতাংশ। তবে দ্বিতীয়ার্ধে এই হার বেড়ে হতে পারে ৭.৩ থেকে ৭.৪ শতাংশ।

আরও পডু়ন: ওয়েনাড কেন্দ্রে মনোনয়ন জমা দিলেন রাহুল, অমেঠীতে কিছুই করেননি, খোঁচা স্মৃতির

আরও পডু়ন: ‘আমার উপর অ্যাসিড হামলার চেষ্টা হয়েছিল’, নির্বাচনী জনসভায় কেঁদে ফেললেন জয়াপ্রদা

দিল্লি দখলের লড়াইলোকসভা নির্বাচন ২০১৯