ঘাড়ে চেপে মোট ২,৮৮,২৪৩ কোটি টাকার ধার (গত ৩০ জুন পর্যন্ত)। নিট ধারও ১,৫৪,৪৭৮ কোটি (গত ৩১ মার্চ পর্যন্ত)। সংস্থার নাম রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজ় হলেও, তা নিয়ে শুরু হয়েছে গুঞ্জন। সোমবার সেই ধারই দেড় বছরে শূন্যে নামিয়ে আনার ‘প্রতিশ্রুতি’ দিলেন কর্ণধার মুকেশ অম্বানী। জানালেন, তেল ও রাসায়নিক ব্যবসার ২০% সৌদি তেল দৈত্য অ্যারামকোকে বেচছেন তাঁরা। পেট্রল পাম্প ও বিমান জ্বালানি বিক্রির ব্যবসার ৪৯% যাচ্ছে ব্রিটেনের তেল সংস্থা বিপির হাতে। তাঁর স্পষ্ট বার্তা, এর হাত ধরে ১৮ মাসের মধ্যেই উধাও হবে রিলায়্যান্সের সমস্ত ধার। আগামী দিনে আরও বদলের ইঙ্গিতও দিয়েছেন ‘নতুন রিলায়্যান্স’ গড়ার কথা বলে।

যদিও বাজার বিশেষজ্ঞদের দাবি, এটা আসলে এক ঢিলে দুই পাখি মারা। শুধু ধার কমানো নয়, সংস্থার লাভজনক ব্যবসার একাংশ বেচে বাজারে জিয়োর জমি পোক্ত করার রসদও জোগাড় করছেন ধীরুভাই অম্বানীর বড় ছেলে। কারণ, বিশ্লেষকদের অনেকেই যেমন মুকেশের সংস্থার ক্রমশ বাড়তে থাকা ধার নিয়ে চিন্তিত, তেমনই সস্তায় নেট দিতে বেশি খরচ হওয়ার যুক্তি তুলে একাংশ কাঠগড়ায় দাঁড় করান তাঁর টেলিকম সংস্থা জিয়োকেও। শিল্প মহল বলছে, সোমবার যেন সেই সব সমস্যারই সমাধান ঘোষণা করলেন মুকেশ। তাঁর দাবি, এই সমস্ত উদ্যোগের হাত ধরে হিসেবর খাতার নিরিখে বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী সংস্থা হতে চলেছে রিলায়্যান্স।

সোমবার রিলায়্যান্সের বার্ষিক সাধারণ সভায় বিশ্বের বৃহত্তম তেল সংস্থা অ্যারামকোর সঙ্গে জোট বাঁধার কথা ঘোষণা করলেন মুকেশ। সেই অ্যারামকো, যারা মুনাফার খোঁজে ভারতের মতো সম্ভাবনাময় বাজারকে পাখির চোখ করেছে অনেক দিনই।

লক্ষ্য ধার মুক্তি

• গত পাঁচ বছরে লগ্নি ৫.৪ লক্ষ কোটি টাকা। বেশির ভাগই ধারে।

• বকেয়া ঋণ ২.৮৮ লক্ষ কোটি। নিট ধারও ১.৫৪ লক্ষ কোটি টাকা।

• দেড় বছরে লক্ষ্য রিলায়্যান্সের নিট ধারের পরিমাণ শূন্যে নামানো।

শেয়ার হাতবদল

• রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজ়ের তেল ও গ্যাস ব্যবসার ২০% অংশীদারি হাতে নেবে অ্যারামকো।

• এর আওতায় থাকছে গুজরাতের জামনগরে মুকেশের সংস্থার তেল শোধনাগারও।

• দিনে ৫ লক্ষ ব্যারেল অশোধিত তেল দেবে অ্যারামকো।

• ৭,০০০ কোটি টাকায় তেলের খুচরো ব্যবসায় (পাম্প) ৪৯% অংশীদারি নেবে বিপি।

• দুই হাতবদল থেকে ১.১৫ লক্ষ কোটি টাকা পাবে রিলায়্যান্স।

• সৌদি আরবের রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা। অশোধিত তেল উৎপাদনে বিশ্বে অগ্রণী।

• বছরে ব্যবসা ৩৭,৮০০ কোটি ডলারের।

• শেয়ার মূল্যে সম্ভবত পৃথিবীতে সবচেয়ে দামি।

• সারা দুনিয়ায় তোলা প্রতি আট ব্যারেল অশোধিত তেলের মধ্যে এক ব্যারেল আসে এদের ভাঁড়ার থেকে।

• মহারাষ্ট্রে ২.৮ লক্ষ কোটি টাকায় দেশের বৃহত্তম তেল শোধনাগার ও পেট্রো-রসায়ন কেন্দ্রে ৫০% নিতে প্রাথমিক চুক্তি।

পুরনো সঙ্গী বিপি

• ব্রিটিশ তেল বহুজাতিক।

• রিলায়্যান্সের সঙ্গে কে জি বেসিনে লগ্নিতে গাঁটছড়া ২০১১ সালে।  ঢেলেছিল ৭২০ কোটি ডলার।

• এ বার হাত মেলানো পেট্রল পাম্প ও বিমানের জ্বালানি বিক্রিতে।

নতুন প্রকল্পে বিপির হাত ধরার কথাও বলেছেন মুকেশ। ২০১১ সালে রিলায়্যান্সের তেল-গ্যাস ক্ষেত্রের ৩০% যাদের হাতে তুলে দেওয়ার কথা বলে ভারতের ইতিহাসে বেসরকারি ক্ষেত্রে বৃহত্তম বিদেশি লগ্নির আসার দরজা খুলেছিলেন তিনি। এই দুই চুক্তি চূড়ান্ত হবে সব খতিয়ে দেখার পরে। লাগবে নিয়ন্ত্রকের সায়ও।