Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

নুঙ্গিতে পোশাক পার্ক তৈরির পরিকল্পনা

পরিকল্পনা অনুসারে, নুঙ্গিতে ১১ লক্ষ বর্গফুট এলাকা জুড়ে শিল্প পার্কটি গড়ে উঠবে। যার প্রাথমিক নকশাও তৈরি। সেখানে পোশাক তৈরির সংস্থার পাশাপাশ

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২২ ডিসেম্বর ২০১৯ ০২:৫৫
প্রতীকী চিত্র

প্রতীকী চিত্র

দক্ষিণ ২৪ পরগনার নুঙ্গিতে পোশাক তৈরির পার্ক (গারমেন্ট পার্ক) গড়ে তোলার পরিকল্পনা করেছে রাজ্য। বড় পোশাক সংস্থাগুলির পাশাপাশি ওই পার্কে মেটিয়াবুরুজের প্রায় ১০০০টি ছোট ইউনিটকেও জায়গা দেওয়া হবে বলে শনিবার ৫০তম পোশাক মেলার অনুষ্ঠানে জানান রাজ্যের অর্থ তথা শিল্পমন্ত্রী অমিত মিত্র। তাঁর দাবি, পার্কটি গড়তে প্রায় ৪০০ কোটি টাকা খরচ করবে রাজ্য। প্রত্যক্ষ ভাবে কাজ পাবেন কমপক্ষে ৮০০০ জন।

পরিকল্পনা অনুসারে, নুঙ্গিতে ১১ লক্ষ বর্গফুট এলাকা জুড়ে শিল্প পার্কটি গড়ে উঠবে। যার প্রাথমিক নকশাও তৈরি। সেখানে পোশাক তৈরির সংস্থার পাশাপাশি ৩০০টি বড়-মাঝারি সংস্থা যাতে পণ্যের বিপণন করতে পারে, তার ব্যবস্থা থাকবে। মেটিয়াবুরুজের সংস্থাগুলিকে নিয়ে আলাদা করে একটি বাজার গড়া হবে পার্কের মধ্যেই। মেটিয়াবুরুজের পোশাক সংস্থাগুলির সমিতির সভাপতি নজরুল ইসলাম মোল্লা জানিয়েছেন, সরকারের প্রস্তাব আকর্ষণীয়। সাধ্যের মধ্যে পার্কে জায়গা পেলে তাঁরা নুঙ্গিতে যাবেন।

দেশের অর্থনীতির ঝিমুনির মধ্যে রাজ্যের বৃদ্ধির হার যথেষ্ট চড়া বলেও এ দিন দাবি করেন অমিতবাবু। তাঁর দাবি, রাজ্যে বেকারত্বের হার কমার পাশাপাশি দরিদ্র মানুষের সংখ্যাও কমছে। রাজ্যের সার্বিক বৃদ্ধি হচ্ছে বলেই ছোট-মাঝারি শিল্প সংস্থাগুলিও ব্যাঙ্ক থেকে ঋণ নিচ্ছে। সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে গত কয়েক বছর ধরে ব্যাঙ্কগুলির ঋণ দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা ছাপিয়ে গিয়েছে বলে জানান তিনি। অর্থমন্ত্রী বলেন, চলতি অর্থবর্ষে ছোট-মাঝারি সংস্থাকে ৭০,০০০ কোটি টাকা ঋণ দেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা স্থির করা হয়েছে। যার মধ্যে এপ্রিল-সেপ্টেম্বরে ৩৫,০৮৯ কোটি ঋণ দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

সেই সঙ্গে মন্ত্রীর দাবি, আগামী দিনে রাজ্যে ৭টি বস্ত্র পার্কের উন্নতি ও সম্প্রসারণের দিকেও নজর দেবে সরকার। ২০২৩ সালের মধ্যে রাজ্যের ব্যবসার অঙ্ক ১ লক্ষ কোটি টাকায় নিয়ে যেতে বস্ত্র শিল্পকে আর্জি জানান তিনি। পশ্চিমবঙ্গ পোশাক তৈরি ও ডিলার্স সমিতির উদ্যোগে এই মেলায় ৬০০টি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড হাজির হয়েছে। কমপক্ষে ৫০০ কোটি টাকা ব্যবসা হবে বলে সমিতির আশা।

আরও পড়ুন

Advertisement